বাংলাদেশ থেকে ৪০ হাজার কর্মী নেবে রোমানিয়া

  14-10-2021 08:49PM

পিএনএস ডেস্ক: দক্ষিণ-পূর্ব ইউরোপের দেশ রোমানিয়া বাংলাদেশ থেকে ৪০ হাজার কর্মী নেওয়ার বিষয়ে আগ্রহী বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন।

বৃহস্পতিবার (১৪ অক্টোবর) রোমানিয়া ও সার্বিয়া সফর শেষে রাজধানীর নিজ বাসভবনে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে এসব তথ্য জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

ড. মোমেন বলেন, ‘রোমানিয়ায় শ্রমিক প্রয়োজন। কারণ দেশটির লোকজন ইউরোপের অন্য দেশে চলে যাচ্ছে। তাদের তথ্যপ্রযুক্তি, নির্মাণকাজ, প্লাম্বার, ইলেক্ট্রিশিয়ানসহ অন্যান্য পেশার লোক দরকার আছে। রোমানিয়া সরকারের সঙ্গে এ নিয়ে আমার আলাপ হয়েছে। তারা (রোমানিয়া) নিয়মতান্ত্রিকভাবে লোক নিতে চায় এবং তাদের এখন প্রায় ৪০ হাজার লোকের প্রয়োজন। এখন কোন কোন ক্ষেত্রে শ্রমিক লাগবে, কোন কোন ক্ষেত্রে আমরা দিতে পারবো সেটা বিবেচনা করা হবে।’

রোমানিয়াতে যাওয়ার জন্য ৩০০ বাংলাদেশি ভিসার আবেদন করে পাচ্ছেন না জানিয়ে মোমেন বলেন, ‘রোমানিয়ায় প্রায় একহাজার বাংলাদেশির চাকরি হয়েছে। আমাদের ৩০০ লোক ভিসার আবেদন করেছে কিন্তু ভিসা পাচ্ছে না। বলকান যুদ্ধের সময় দুই দেশের মিশন বন্ধ করে দেওয়া হয়। এখন বাংলাদেশ থেকে শ্রমিক নিতে মূল সমস্যা হচ্ছে ঢাকায় তাদের কোনো মিশন নেই। দেশটি দিল্লির মিশনকে কাজে লাগাতে চায়। তবে সে মিশনটাও ছোট। এর মধ্যে যারা আবেদন করেছেন, তাদের ওয়ার্ক পারমিট আসেনি।’

‘আমার সঙ্গে তাদের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর আলাপ হয়েছে এবং তিনি জানিয়েছেন দিল্লিতে তাদের মিশন থেকে একটি কনস্যুলার দল ঢাকায় এসে ভিসা দেবে।’

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘এখন প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয় বিষয়টি দেখবে। শ্রমিক পাঠানোর বিষয়টি হবে সরকার টু সরকার পর্যায়ে। বেসরকারি খাতকে এখানে অন্তর্ভুক্ত করা হবে না।’

জোট নিরপেক্ষ আন্দোলনের (ন্যাম) সম্মেলনে যোগ দিতে রোমানিয়া থেকে সার্বিয়ার বেলগ্রেডে যান পররাষ্ট্রমন্ত্রী। সার্বিয়ার প্রেসিডেন্টে আলেকজান্ডার ভুসিকের সঙ্গে বৈঠক করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

সার্বিয়া বাংলাদেশি কর্মী পাঠানো প্রসঙ্গে মোমেন বলেন, ‘সার্বিয়ায় আমাদের কিছু লোক গেছে। আমরা সেখানে আরও লোক পাঠাতে চাই। ইতোমধ্যে তারা আমাদের কিছু কর্মী নিয়েছে, যারা মাসে ৫০০ ডলার বেতন পাচ্ছে এবং তাদের থাকা-খাওয়া ফ্রি। তারা জানিয়েছে, বড় প্রকল্প হাতে নিয়েছে; তাদের অনেক কর্মী লাগবে। তারা সরকারিভাবে লোক নিতে চায়।’

সার্বিয়ায় কর্মী পাঠাতে দেশটির সঙ্গে বাংলাদেশের একটি চুক্তির প্রয়োজন বলেও জানান ড. মোমেন।

পিএনএস/জে এ

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন