সুন্নতে খতনা যেন আতঙ্কের নাম, এবার পদ্মা হাসপাতালে

  28-02-2024 12:22PM



পিএনএস ডেস্ক: সুন্নতে খতনা যেন আতঙ্কের নামে পরিণত হয়েছে। বেসরকারি হাসপাতালে একের পর এক শিশু মৃত্যু আর অঙ্গহানির ঘটনায় এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। খতনার মতো ছোট অস্ত্রোপচারে একের পর এক শিশু মৃত্যুর ঘটনাই চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দেয় দেশের স্বাস্থ্য খাতের বেহাল দশার চিত্র।

চলতি বছরের সাত জানুয়ারি ইউনাইটেড মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে খতনা করাতে গিয়ে ৫ বছরের শিশু আয়ানের মৃত্যু হয়। এর মাসখানেক পরেই গত ২০ ফেব্রুয়ারি মালিবাগ চৌধুরীপাড়ার একটি ডায়াগনস্টিক সেন্টারে আহনাফ তাহমিন আয়হাম নামের ১০ বছরের আরও এক শিশুর মৃত্যু হয়। এরমধ্যেই অভিযোগ উঠেছে কয়েক মাস আগে রাজধানীর নাখালপাড়ার কুলসুম বেগমের ছেলে ইসমাইল হোসেনের খতনা করাতে গিয়ে মূত্রনালী কেটে ফেলেন পদ্মা জেনারেল হাসপাতালের চিকিৎসক মিজানুর রহমান।

পরিবারের অভিযোগ খতনা করার পর বাসায় গেলে এই ঘটনা ধরা পড়ে। ক্ষতিপূরণ চাইলে চিকিৎসক নানা হুমকি দেয় বলেও অভিযোগ তাদের।

পদ্মা জেনারেল হাসপাতালে গিয়ে জানা যায়, চিকিৎসক মিজান এই হাসপাতালে ডাক্তারই নয়, তিনি ওটি চার্জ দিয়ে এই অপারেশনটি করেছিলেন। এ ছাড়া মিজানুর রহমানের নামে নানা অভিযোগ রয়েছে। শ্লীলতাহানির অভিযোগে জেলও খেটেছেন তিনি।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) এনেস্থেসিওলজি বিভাগের চেয়ারম্যান প্রফেসর দেবব্রত বণিক বলেন, এই ঘটনায় পদ্মা জেনারেল হাসপাতাল এবং চিকিৎসক দায় এড়াতে পারে না।


পিএনএস/এমএইউ

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন