কোপায় ৭০ বছরের রেকর্ড ভাঙলেন মেসি

  22-06-2024 12:50AM



পিএনএস ডেস্ক:৪টি ম্যাচ খেলে টুর্নামেন্ট থেকে বিদায় নেয়। নিজেদের মাটিতে হওয়া এই টুর্নামেন্টে গোলশূন্য ছিলেন মেসি। ২০১৫ সালে চিলির কাছে ফাইনালে হারে মেসির দল। ৬ ম্যাচ খেলে মেসি মাত্র ১ গোল করেন।

২০১৬ সালের কোপা আমেরিকায় ফাইনাল সহ ৬টি ম্যাচ খেলে ৫ গোল করেন মেসি। ফাইনালে আবারো মুখোমুখি হতে হয় চিলির, এবারও হারে আর্জেন্টিনা। টাইব্রেকারে চিলির কাছে হারার পর আন্তর্জাতিক ফুটবল থেকে বিদায় নেওয়ার ঘোষণা দেন তিনি।

চিলির বিপক্ষে টাইব্রেকে গোল করতে ব্যর্থ হওয়ায় সমালোচনার মুখে এই সিদ্ধান্ত নেন তিনি। এরপর সমর্থকদের প্রবল অনুরোধে আবারো জাতীয় দলে ফিরেন মেসি।

২০১৯ সালে ব্রাজিলের কাছে সেমিফাইনালে হেরে বিদায় নেয় মেসির দল। ৬ ম্যাচ খেলে ১ গোল করতে সমর্থ হন মেসি। ২০২১ সালের কোপা আমেরিকায় ৬টি ম্যাচ খেলে ৪ গোল করেন মেসি। দলকে নিজের ক্যারিয়ারের প্রথম কোপা শিরোপা এনে দেন।

১৯৪১ সাল থেকে ছয়টি কোপা আমেরিকা টুর্নামেন্টে অংশ নেন লিভিংস্টোন। ১৯৫৩ সাল পর্যন্ত কোপা আমেরিকায় চিলির গোলকিপার হিসেবে তিনি মোট ৩৪ ম্যাচ খেলেন। এরমধ্যে ১৯৪৭ সালে দলকে এনে দেন কোপা আমেরিকার চতুর্থ স্থান। আর ব্রাজিলিয়ান লিজেন্ড জিজিনহো কোপা আমেরিকায় মোট ৩৩ ম্যাচ খেলে ১৭ গোল করেন।

১৯৪২ সাল থেকে ১৯৫৭ সাল পর্যন্ত মোট ৩৩ ম্যাচ খেলেন এই ব্রাজিলিয়ান স্ট্রাইকার। জিজিনহোর সুযোগ ছিল ১৯৬১ সালের কোপা আমেরিকায় অংশ নিয়ে লিভিংস্টোনকে ছাড়িয়ে যাওয়ার। কিন্তু সেবার ব্রাজিল আর তাকে কোপা দলে অন্তর্ভুক্ত করেনি, ১৯৬২ সালে জাতীয় দল থেকে অবসর নেন তিনি।


এমএইউ

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন