রংপুরে তিস্তায় পানি বৃদ্ধি, পানিবন্দি দুই হাজার পরিবার

  21-06-2021 09:21PM

পিএনএস ডেস্ক : উজানের ঢলে তিস্তায় পানি বৃদ্ধি পেয়ে রংপুরের গঙ্গাচড়ায় তিস্তার চরাঞ্চলসহ তীরবর্তী এলাকার প্রায় দুই হাজার পরিবার পানিবন্দি হয়ে পড়েছে। রবিবার রাত থেকে তিস্তায় পানি বৃদ্ধি পেয়েছে। সোমবার ভোর ৬টায় তিস্তা ব্যারাজের ডালিয়া পয়েন্টে নদীর পানি বিপদসীমার ৩ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে প্রবাহিত হয়েছে।

এই পয়েন্টে বিপদসীমা ৫২ দশমিক ৬০ সেন্টিমিটার। পানি বৃদ্ধির কারণে ব্যারাজের ভাটি এলাকা গঙ্গাচড়ার প্রায় ১৫টি চরের দুই হাজার পরিবার পানিবন্দি হয়ে পড়ে। এছাড়া কোলকোন্দ ইউনিয়নের বিনবিনা এলাকায় স্বেচ্ছাশ্রমে নির্মিত বাঁধটির বাকি অংশ আবারও ভেঙে পড়ছে।

জানা গেছে, কোলকোন্দ ইউনিয়নের চিলাখাল, চর মটুকপুর, বিনবিনা এলাকার এক হাজার ২০০ ও লক্ষ্মিটারী ইউনিয়নের শংকরদহ, চর ইচলী, এলাকায় ৬০০ এবং গজঘণ্টা ইউনিয়নের ছালাপাক, জয়দেবসহ নিচু এলাকার ২০০ পরিবার পানিবন্দি হয়ে পড়েছে। বাড়িঘরে পানি ওঠায় বিনবিনা এলাকায় কিছু লোক গবাদিপশু, বাড়ির আসবাবপত্রসহ রাস্তায় কিংবা উঁচু স্থানে আশ্রয় নিয়েছে।

কোলকোন্দ ইউপি চেয়ারম্যান সোহরাব আলী রাজু জানান, তার ইউনিয়নের চিলাখাল, উত্তর চিলাখাল, মটুকপুর, বিনবিনা মাঝের চর, সাউদপাড়া ও বাবুরটারী বাঁধেরপার ও বিনবিনা এলাকায় এক হাজার ২০০ পরিবার এখন পানিবন্দি। লক্ষ্মিটারী ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল হাদী জানান, তার ইউনিয়নের কয়েকটি এলাকায় ৬০০ পরিবার পানিবন্দি হয়ে পড়েছে।

রংপুর পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী মো. জাকারিয়া তিস্তায় পানি বৃদ্ধির কথা স্বীকার করে বলেন, বিকেলে পানি কমতে শুরু করেছে।

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন