পিরোজপুরে দাফনের ৪৩ দিন পর লাশ উত্তোলন

  25-11-2021 07:37PM

পিএনএস ডেস্ক: পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া উপজেলার দাফনের ৪৩ দিন পর কবর থেকে ইমরান গাজী (২৬) নামে এক যুবকের লাশ উত্তোলন করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৫ নভেম্বর) পিরোজপুর নির্বাহী ম্যজিস্ট্রেট মো. নাহিদ হাসান ও ডাক্তার প্রীতম কুমার পাইকের উপস্থিতিতে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পিবিআই ইন্সপেক্টর আহসান কবির লাশ উত্তোলন করেন।

ইমরান গাজী পেশায় ইলেক্টট্রিক মিস্ত্রি ছিলেন। তিনি পিরোজপুর জেলার কাউখালী উপজেলা পৌর শহরের সবুজনগর গ্রামের মৃত মন্নান গাজীর ছেলে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত ১১ অক্টোবর সোমবার দুপুরে পৌর শহরের সবুজ নগর গ্রামের আউয়াল শরীফ এর নির্মাণাধীন ভবনের তৃতীয় তলায় একটি কক্ষে ফ্যান লাগানোর রডের সাথে ইমরানকে গলায় ফাঁস লাগানো মৃতদেহ উদ্ধার করে মঠবাড়িয়া থানা পুলিশ।

এ ঘটনায় নিহতের ভাই আব্দুল্লাহ গাজী বাদী হয়ে গত ১৮ অক্টেবর ৫ জনের বিরুদ্ধে মঠবাড়িয়া সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলা দায়ের করেন। আদালতের বিচারক হাকিম মো. কামরুল আজাদ মামলাটি আমলে নিয়ে পিবিআইকে তদন্তের আদেশ দেন।

মঠবাড়িয়া সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের আইনজীবী অ্যাডভোকেট নাসরিন জাহান জানান, ইলেক্টট্রিক মিস্ত্রি ইমরান গাজীকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে- এমন অভিযোগে তার ভাই মামলা করেন। পরে আবেদনের প্রেক্ষিতে আদালত পিবিআইকে তদন্তের আদেশ দেন।

পিবিআই ইন্সপেক্টর আহসান কবির বলেন, আদালতের নির্দেশে নির্বাহী ম্যজিস্টেট ও ডাক্তারের উপস্থিতিতে লাশ উত্তোলন করে মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পেলে মৃত্যুর রহস্য জানা যাবে।

পিএনএস/আইএইচ

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন