চাচাতো বোনকে বিয়ে করায় খুন হয়েছে সৌরভ

  04-06-2024 05:40PM

পিএনএস ডেস্ক: ময়মনসিংহে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র ওমর ফারুক সৌরভ হত্যার ঘটনায় চাচাসহ তিনজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সোমবার (৩ জুন) ঢাকা ও ময়মনসিংহের সীমান্তবর্তী উপজেলা ধোবাউড়া থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন- সৌরভের চাচা অবসরপ্রাপ্ত সেনা সদস্য ইলিয়াছ আলী, তার শ্যালক আহাদুজ্জামান ফারুক ও লাশ বহনকারী গাড়ীর ড্রাইভার আব্দুল হান্নান আকন্দ।

মঙ্গলবার (৪ জুন) দুপুরে পুলিশ সুপার কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান পুলিশ সুপার মাছুম আহাম্মদ ভূঞা।

তিনি জানান, তিন বছর আগে ইলিয়াছের মেয়ে ইভার সাথে কানাডা প্রবাসী একজনের বিয়ে হয়। গত ১২ মে ইভা গোপনে ওমর ফারুক সৌরভকে বিয়ে করলে ইভার পরিবার মেনে নেয়নি। ১৬ মে ইলিয়াছ তার মেয়ে ইভাকে কানাডায় পাঠিয়ে দেয়। গত শনিবার ইলিয়াছ তার ছেলে মৃদুলকে দিয়ে সৌরভকে ময়মনসিংহের বাসায় ডেকে আনে। সেই বাসাতেই ইলিয়াছ ও তার শ্যালক ফারুক সৌরভকে হাত-পা বেঁধে মাথায় আঘাতে হত্যা করে। মরদেহ বাথরুমে রেখে নগরীর একটি দোকান থেকে লাগেজ কিনে আনে এবং মরদেহ টুকরো করে সেই লাগেজে ভরে। এরপর প্রাইভেট কার ভাড়া করে লাগেজ ভর্তি মরদেহ মনতলা ব্রিজের নিচে সুতিয়া নদীতে ফেলে দেয়।

পুলিশ লাগেজ দোকানের সিসিটিভির ফুটেজ দেখে আসামিদের শনাক্ত করে এবং গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়।

এসএস

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন