রানা মিয়া হত্যার জের: নান্দাইলে ৩৫ পরিবার পুরুষশূন্য

  22-06-2024 07:51PM

পিএনএস ডেস্ক: ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলার রাজগাতী ইউনিয়নের বনাটি গাঙ্গাইলপাড়া গ্রামে দুই মাস আগে রানা মিয়া (২৫) নামে এক যুবক হত্যাকাণ্ডের শিকার হয়। এ ঘটনার পরপর আসামিদের বাড়ি-ঘরে হামলা, ভাঙচুর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটে। ভাঙচুর ও লুটপাট হওয়া ৩৫টি পরিবারের বাড়িতে পুরুষ লোক থাকে না। তারা অন্যত্র পালিয়ে আছে। ওই হত্যা মামলার আট আসামি জামিনে মুক্ত হয়েও বাদী পক্ষের হুমকিতে বাড়িতে আসতে পারছেন না। এমনকি বাড়িতে থাকা নারীদেরও হুমকি দেওয়া হচ্ছে। এ ছাড়া আসামিদের জমির পাকা ধান কেটে নিয়ে গেছে বাদী পক্ষের লোকজন।

সরেজমিন গিয়ে দেখা যায়, রাজগাতী ইউপির ওই গ্রামে ফুল মিয়া ভূঁইয়ার বাড়িতে ঘরের টিনের চালগুলো ঠিক থাকলেও বারান্দার চাল ভেঙে ফেলা হয়েছে। ঘরের বেড়া বা ভেতরে মালামাল নেই। ফুল মিয়ার স্ত্রী হালিমা খাতুন জানান, তিনিও হুমকির কারণে অন্যের বাড়িতে বসবাস করছেন। পাশের বাড়ির দুলাল মিয়া মামলার আসামি নন। কিন্তু তার ঘর ভাঙচুর ও লুটপাট করা হয়েছে। ঘরে প্রবেশে বাধা দিতে চতুর্দিকে বরই কাঁটা দিয়ে রাখা হয়েছে। দুলালের মেয়ে শিল্পী আক্তারের অভিযোগ, তিনি বর্তমান ঢাকা থাকেন, তাদের ৩টি গরুসহ ৭০ মণ ধানও লুট করে নিয়ে গেছে। মামলায় অভিযুক্ত নয় এমন বেশ কয়েকজনের বাড়িও ভাঙচুর ও লুটপাট করা হয়েছে। বৃদ্ধ আছিয়া বেগম জানান, তার ছয় ছেলে আসামি নয়। তারপরও তাদের বাড়িতে হামলা হয়েছে। জমির ধান কেটে নিয়েছে। ভাঙচুর ও লুটপাট করা হয়েছে পাশের সোলেমান ভূঁইয়ার বাড়ির বেশ কয়েকটি ঘর।

আসামি শাহিন আলমের মা বেদেনা আক্তার জানান, রাতে বাড়িতে এসে দা, বল্লম দেখিয়ে হত্যার হুমকি দিয়ে চাঁদা দাবি করে প্রতিপক্ষের লোকজন। জানা গেছে, ২১ এপ্রিল রাতে পূর্বশত্রুতার জেরে প্রতিপক্ষের হাতে খুন হন বনাটি গ্রামের আবুল হাসেমের ছেলে রানা মিয়া। ঘটনার পর প্রতিপক্ষের ভাঙচুর ও লুটপাটের খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ হত্যাকা-ের পরদিন সাবেক ইউপি সদস্য মাসুদ মিয়া বাদী হয়ে ১৯ জনকে নামীয় এবং আরো পাঁচ থেকে ছয়জনকে বেনামি আসামি করে থানায় হত্যা মামলা করেন। আটজন জামিনে এবং অন্য আসামিরা পলাতক রয়েছে।

মামলার বাদী মাসুদ মিয়া এ বিষয়ে বলেন, ভাঙচুর ও লুটপাটের অভিযোগ সত্য নয়। প্রতিপক্ষরা হয়তো তাদের (বাদীপক্ষের) বিরুদ্ধে নতুন কোনো মিথ্যা মামলা করার ফন্দি খুঁজছেন। হত্যা মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা নান্দাইল মডেল থানার উপপরিদর্শক সালাম মিয়া জানান, মামলাটির ময়নাতদন্ত রিপোর্ট এখনো পাইনি, পেলেই চার্জশিট দেবেন। আসামিদের বাড়িঘর লুটপাটের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, বিষয়টি শুনেছি তবে অভিযোগ পাইনি, পেলে আইনগত পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

এসএস

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন