স্বাস্থ্যকথা

দীর্ঘজীবী হতে যে ধরণের খাবার খেতে পারেন

  

পিএনএস: মানুষ কিভাবে দীর্ঘজীবী হতে পারে কিংবা কিভাবে তারা রোগ প্রতিরোধ করতে পারে সে বিষয়ে গবেষণার অন্ত নেই।পাশ্চাত্যে এনিয়ে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে এবং চিকিৎসাশাস্ত্রে নানা গবেষণা হচ্ছে। লন্ডনের ইমপেরিয়াল কলেজের এক গবেষণায় বলা হয়েছে, প্রতিদিন ৮০০ গ্রাম নানা ধরনের ফল এবং সবজি খাওয়া হলে দীর্ঘজীবী হবার সম্ভাবনা বাড়ে।তবে ৮০০ গ্রাম ফল এবং সবজি একবারে না খেয়ে দিনে ১০বার ভাগ করে খেতে হবে। সেজন্য প্রতিবার ৮০গ্রাম করে বিভিন্ন ধরনের ফল এবং সবজি খেতে হবে।ইমপেরিয়াল কলেজের গবেষকরা

গলায় কাঁটা বিঁধলে করণীয়

  

পিএনএস ডেস্ক: মাছ ছাড়া বাঙালি- এ যেন ভাবাই যায় না। কিন্তু, যদি গলায় কাঁটা আটকে যায়? আটকাতেই পারে। তাই বলে তো মাছ খাওয়া বন্ধ করা যায় না। তা হলে আসুন জেনে নেই গলার কাঁটা বিঁধে গেলে করণীয় সম্পর্কে।গলায় কাঁটা আটকে গেলে প্রথমেই পানি পান করুন। এতে কাজ না হলে, হালকা গরম পানির সঙ্গে অল্প লবণ গুলিয়ে পান করুন। কাঁটা নরম হয়ে নেমে যাবে। সাদা ভাত ছোট ছোট বল বানিয়ে পানি দিয়ে গিলে ফেলুন। এতে গলায় আটকা মাছের কাঁটা নেমে যাবে। দেরি না করে পারলে চটজলদি একটি কলা খান। কলা খেতে খেতে কখন যে কাঁটা নেমে যাবে

শিশুকে খাওয়ান ভারসাম্যপূর্ণ খাবার

  

পিএনএস ডেস্ক: আপনার সন্তান কি খাবারের বিষয়ে খুবই খুঁতখুঁতে? কিংবা অতি ব্যস্ত হয়ে খাবার শেষ করতে চায়? যদি তাই হয়, তবে আপনি নিশ্চয়ই দুশ্চিন্তা করছেন। বিশেষজ্ঞদের মতে, এমন শিশুদের খুব দ্রুত পুষ্টিতে ভারসাম্যপূর্ণ খাবার খাওয়ানোর অভ্যাস গড়ে দিতে হবে। নয়তো বিপদ! শিশু ও টিনএজারদের প্রতিদিনের পুষ্টিকর খাদ্যাভ্যাস গড়ে দিতে কিছু পরামর্শ দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। যে খাবারগুলো আর খেতে দেবেন না—মাইক্রোওয়েভ পপকর্নএই প্রিয় খাবারের ব্যাগে রয়েছে এক ধরনের রাসায়নিক পদার্থ যার নাম ডায়াসিটাইল। এটা এক ধরনের

বেগুনের পানিতে ভুঁড়ি কমে!

  

পিএনএস ডেস্ক:শরীরের অতিরিক্ত ওজন নিয়ে চিন্তায় পড়েছেন? খাওয়া কমিয়ে দিয়েছেন, জিমে ঘাম ঝরাচ্ছেন। তবু কাজের কাজ কিছু হচ্ছে না? সব তো করেছেন, কিন্তু বেগুন ট্রাই করেছেন কি?জেনে চমকে উঠলেন বুঝি? ভাবছেন রোগা হওয়ার সঙ্গে বেগুনের কী সম্পর্ক? নিয়মিত বেগুনের পানি পান করুন, আর দেখুন ম্যাজিকের মতো কীভাবে আপনার ওজন কমে। বেগুনের পানিকে 'মিরাক্যল ওয়াটার'ও বলা হয়ে থাকে। শুধু ওজন কমানো নয়, এই পানি আপনার এনার্জি লেভেলকেও বুস্ট আপ করবে। বেগুনে আছে অনেক পুষ্টিগুণ। পাশাপাশি এর ক্যালোরি কাউন্ট বেশ কম। তাই বেগুন

সুস্থ থাকতে চা’য়ের গুরুত্ব

  

পিএনএস ডেস্ক : অনেকে বলে চায়ের নাকি কোনও গুণ নেই। ভুল কথা। একাধিক গবেষণায় এ কথা প্রমাণিত হয়েছে যে, নিয়মিত হার্বাল টি খেলে শরীর সব দিক থেকে ভালো থাকে।শুধু তাই নয়, নানা ধরনের জটিল রোগের হাত থেকে বাঁচাতেও চা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে। বিশ্বের অনেক দেশেই চা পানের রীতি রয়েছে। কেউ রিফ্রেশমেন্টের জন্য তো কেউ স্বাভাববশতই দিনে কয়েক কাপ চা পান করে থাকেন।আবার অফিসের কাজের ফাঁকে একটু এনার্জি পেতেও অনেকে গরম চায়ের পেয়ালায় চুমুক মারেন। আর যারা মনে করেন এই অভ্যাস শরীরের পক্ষে ক্ষতিকর, তাদের

মাড়ির জন্য

  

পিএনএস ডেস্ক: একটু খানি অচেতনতা কিংবা অবহেলার কারণে ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে আমাদের দাঁতের মাড়ি। একবার ইনফেকশন দেখা দিলে তা সারতে যেমন সময় নেয়, তেমনই ভোগান্তিরও কারণ। সুস্থ ও সুন্দর দাঁত যেমন জরুরি তেমনই সুস্থ মাড়িও জুরুরি। তাই চলুন জেনে নেই কীভাবে প্রতিদিনের কাজের মাধ্যমে দাঁতের মাড়ি সুস্থ রাখবেন।সুস্থ মাড়ি পেতে প্রচুর পরিমাণ তাজা শাকসবজি এবং ফল খেতে হবে কারণ এতে আপনার শরীরের ভিটামিনের অভাব দূর হবে। কাঁচা সবজি এবং ফল চিবিয়ে খেলে মাড়ির রক্ত চলাচল বেড়ে যায় ফলে এটি রক্তক্ষরণ কমিয়ে দেয়।লবঙ্গ

বাদামী চালের উপকারিতা

  

পিএনএস ডেস্ক: ভাত ছাড়া বাঙালি খাবার অসম্পূর্ণ। চাল থেকে ভাত তৈরি হয় যা যেকোনো ধরণের ডায়েটের গুরুত্বপূর্ণ একটি অংশ। বাদামী চাল একধরণের আস্ত শস্যদানা। বাদামী চাল প্রাকৃতিক এবং অপরিশোধিত। অনেকেই সাদা চালের পরিবর্তে বাদামী চাল পছন্দ করেন। সাদা চালের চেয়ে বাদামী চালের উপকারিতা অনেক বেশি। ঠিক কী কারণে বাদামী চালের উপকারিতা বেশি, চলুন জেনে নেয়া যাক-১ কাপ বাদামী চালে ম্যাঙ্গানিজের দৈনিক চাহিদার ৮৮% পূরণ হয়। ম্যাঙ্গানিজ হচ্ছে ফ্রি র্যাডিকেলের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করার একটি গুরুত্বপূর্ণ পুষ্টি উপাদান।

ব্রণের জন্য যে বদঅভ্যাস দায়ী

  

পিএনএস ডেস্ক: ব্রণের সমস্যায় ভুগছেন। দামী ব্র্যান্ডের ফেসওয়াশ ব্যবহার করছেন। ব্রণ কমাতে এটা-ওটা টোটকা লাগাচ্ছেনও, কিন্তু কোনও সুফল পাচ্ছেন না। কমছে, আবার হচ্ছে। এর কারণ হতে পারে আপনার কিছু বদঅভ্যাস।জেনে নিন কী সেই কারণ-১) দিনে দু'বারের বেশি ফেসওয়াশ দিয়ে মুখ ধোওয়া উচিত নয়। কারণ বেশি ফেসওয়াশ ব্যবহার করলে ত্বকের আরও ক্ষতি হয়।২) রোজ যদি কেউ ডেয়ারি প্রোডাক্ট খায়, তাহলে সমস্যা বাড়ে। তৈলাক্ত ত্বক যাদের বা যাদের ব্রণর সমস্যা রয়েছে, তাদের ডেয়ারি প্রোডাক্ট একদমই বেশি খাওয়া উচিত নয়। কারণ দুগ্ধজাত

বমি বন্ধ হয় যে খাবারে

  

পিএনএস ডেস্ক: বমি করা কিন্তু বেশিরভাগ সময়ই আমাদের নিয়ন্ত্রণে থাকে না। পেটে অপাচ্য বা সংক্রামক কিছু পড়লে স্বাভাবিকভাবেই তা বের করে দেয় শরীর। অনেকটা প্রতিবর্ত ক্রিয়ার মতো। কিন্তু ঘরে কয়েকটা জিনিস থাকলে এই বমি কমানো যাবে।১. আদা: আদা কুচিয়ে পানির সঙ্গে মিশিয়ে নিন। সঙ্গে মধু। বমিভাব লাগলেই পান করুন। উপকার পাবেন।২.‌ লবঙ্গ: লবঙ্গ কিন্তু নিমেষে বমি কমিয়ে দেয়। বমি পেলেই গালে একটা লবঙ্গ পুরে রাখুন।৩.‌লবণ, চিনি: বমি হলে শরীরে বিভিন্ন ধরনের লবণের ভারসাম্য নষ্ট হয়। তাছাড়া পানিরও অভাব দেখা দেয়।

রোগীর স্বজনদের মারধর করায় চিকিৎসকদের ইন্টার্নশিপ বাতিলের নির্দেশ

  

পিএনএস ডেস্ক: বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ইন্টার্ন চিকিৎসকদের হাতে রোগীর স্বজনদের মারধর ও কান ধরে উঠবসের ঘটনায় জড়িত ব্যক্তিদের চিহ্নিত করা হয়েছে। তাদের ইন্টার্নশিপ বাতিলের নির্দেশ দিয়েছেন স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম।গতকাল মেডিক্যাল কলেজ কর্তৃপ ও বিএমডিসি কর্তৃপকে এ নির্দেশ দেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী। মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র তথ্য কর্মকর্তা পরীতি চৌধুরী এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।মোহাম্মদ নাসিম বলেন, রোগীদের ভোগান্তিতে রেখে, জিম্মি করে অহেতুক যারা হাসপাতালের

Developed by Diligent InfoTech