স্বাস্থ্যকথা

যে সবজি কাঁচা খেলে বেশি উপকার!

  

পিএনএস ডেস্ক:আমরা ক্ষুধা নিবারণের জন্যই শুধু খাবার খাই না। আমরা খাবার খাই শরীরকে সতেজ রাখার জন্য, ভিটামিন ও পুষ্টি পেয়ে নিরোগ থাকার জন্য। তবে রান্না করার ফলে বেশ কিছু সবজি হারিয়ে ফেলে এর পুষ্টিগুণ। সবজিগুলো কাঁচা খেলে পরিপূর্ণ পুষ্টিগুণ পাওয়া সম্ভব। তাই আমরা এবার জেনে নেবো কোন কোন সবজি কাঁচা খেলে বেশি পুষ্টি ও ভিটামিন পাওয়া যায়।পেঁয়াজ: রান্নার তালিকায় পেঁয়াজ একটি নিত্য প্রয়োজনীয় সবজি। পৃথিবীর প্রায় সব দেশেই মসলা হিসেবে পেঁয়াজ ব্যবহার করা হয়। তবে এটি কাঁচা খেলে ফুঁসফুস ক্যানসার, প্রস্টেট

করোনা রোগীদের ফুসফুসের ব্যায়াম

  

পিএনএস ডেস্ক: বাংলাদেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পর বেশিরভাগ মানুষ বাড়িতে থেকেই চিকিৎসা নিচ্ছেন বলে দেশটির স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।কোভিড-১৯ নামের এই রোগে প্রধানত ফুসফুস আক্রান্ত হয়। এ কারণে কোভিড-১৯ থেকে সুস্থ হয়ে উঠতে চিকিৎসার পাশাপাশি ফুসফুসের ব্যায়াম করার ওপর জোর দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা।বাংলাদেশের স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা বেশ কয়েকবার নিয়মিত ব্রিফিংয়ে বলেছেন, ঘরে থেকেও যারা চিকিৎসা নিচ্ছেন, যারা আক্রান্ত হয়েছেন বা শনাক্ত

হতাশার সময় উদ্বিগ্ন হলে মস্তিষ্কের আকার বাড়ে!

  

পিএনএস ডেস্ক: মানুষ হতাশায় থাকলে তার মস্তিষ্কের নির্দিষ্ট একটি অংশ সংকুচিত হয়ে যায়। কিন্তু এসময় তার উদ্বেগ বৃদ্ধি পেলে মস্তিষ্কের আকার ‘অনেকখানি’ বেড়ে যায় বলে জানিয়েছেন গবেষকরা। দ্য জার্নাল অব সাইকিয়াট্রি অ্যান্ড নিউরোসায়েন্সে প্রকাশিত একটি গবেষণায় এমন দাবি করেছেন বিজ্ঞানীরা।গবেষণায় বলা হয়েছে, ব্রেইন ভলিউমের ওপর হতাশা এবং উদ্বেগের প্রভাব বুঝতে ১০ হাজার মানুষকে নিয়ে কাজ করেছেন বিজ্ঞানীরা।তারা জানান, হিপোক্যাম্পাসের ওপর হতাশা স্পষ্ট একটা প্রভাব ফেলে, সংকুচিত হয়ে যায়। মস্তিষ্কের এই

কালোজিরা খাওয়ার ১০ উপকারিতা

  

পিএনএস ডেস্ক: সব রোগের ওষুধ বলা হয় কালোজিরাকে। একাধিক আশ্চর্য স্বাস্থ্যগুণে সমৃদ্ধ এ কালোজিরা। কালোজিরার বৈজ্ঞানিক নাম Nigella Sativa Linn। পুষ্টিবিদরা বলেন, কালোজিরায় রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ফসফেট, ফসফরাস আর আয়রন, যা দেহের জন্য অতিমাত্রায় উপকারী।পুষ্টিবিদরা বলেন, কালোজিরায় রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ফসফেট, ফসফরাস আর আয়রন, যা দেহের জন্য অতিমাত্রায় উপকারী।সব রোগের ওষুধ বলা হয় কালোজিরাকে। স্থূলতা, ক্যান্সার ও হৃদরোগ– সব কিছুর বিরুদ্ধেই শক্ত প্রতিরোধ গড়ে তোলে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ

যেভাবে বুঝবেন হ্যান্ড স্যানিটাইজারে করোনা মরছে কিনা!

  

পিএনএস ডেস্ক: করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে বারবার হাত ধোয়া জরুরি। হাত ধোয়ার জন্য অ্যালকোহল বেজড হ্যান্ড স্যানিটাইজারের বিকল্প নেই। কিন্তু প্রশ্ন হচ্ছে আপনার হ্যান্ড স্যানেটাইজার আদৌ করোনাভাইরাস মারতে সক্ষম কি না?ভারতের চিকিৎসক অমিতাভ বলেন স্যানিটাইজার ব্যবহার করার আগে অবশ্যই দেখে নিতে হবে, তাতে ৭০ শতাংশ অ্যালকোহল রয়েছে কি না। ৬৫ থেকে ৭০ শতাংশ অ্যালকোহল থাকলে তবেই সেই স্যানিটাইজার স্প্রেতে কাজ হবে।বাজারে নানা রকম সুগন্ধী স্যানিটাইজার কিংবা স্প্রে বিক্রি হচ্ছে। কিন্তু সবকটাই যে

এই বর্ষায় রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানোর ৫ পরামর্শ

  

পিএনএস ডেস্ক : বিশ্বজুড়ে চলছে করোনাভাইরাস মহামারি। করোনা আতঙ্কের মধ্যেই এসেছে বর্ষা। এই মৌসুমে মানুষের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কিছুটা কমে যায়। এর ফলে বিভিন্ন ধরনের ভাইরাসজনিত অসুস্থতা দেখা দেয়। করোনাসহ এসব মৌসুমী অসুস্থতা থেকে মুক্তির সবচেয়ে ভালো উপায় হলো রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানো। শরীরকে ভেতর থেকে শক্তিশালী করতে তুলতে জীবনযাপনে কিছু পরিবর্তন আনতে হবে। চলুন বর্ষায় কীভাবে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াবেন তার পাঁচটি উপায় জেনে নিই-শুকনো ফলপ্রতিদিন সকাল শুরু করুন এক মুঠো ভিজানো কাঠ বাদাম ও কিসমিস

রোগ প্রতিরোধে টক দই

  

পিএনএস ডেস্ক : প্রতিদিনের খাবারে দই থাকে অনেকেরই। রান্নাতেও ব্যবহার করেন কেউ। কেউ আবার খান দুধের বিকল্প হিসেবে। রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা (ইমিউনিটি) বাড়াতে পারলেই সহজ হবে করোনার বিরুদ্ধে লড়াই, এমন কথা মাথায় রেখেই খাবার তালিকায় দই রাখার পরামর্শ দিচ্ছেন পুষ্টিবিদরা।শরীরে শক্তি বাড়াতে যেমন কার্বোহাইড্রেট, প্রোটিন, ফ্যাট দরকার, তেমনই খেয়াল রাখতে হবে যেন খাবারের মধ্যে ভিটামিন ও মিনারেল সম পরিমাণে থাকে। কোভিড আতঙ্কে বাড়ছে উদ্বেগও। তাই সব মিলিয়ে ডায়েটে এমন কিছু রাখতেই হবে, যা পুষ্টিকর এবং

আসল হ্যান্ড স্যানিটাইজার চিনবেন যেভাবে

  

পিএনএস ডেস্ক : করোনাভাইরাসের এ সময়ে ঘরে-বাইরে সতর্ক থাকার বিকল্প নেই। বিশেষজ্ঞরা বার বার ভাল করে সাবান দিয়ে হাত, মুখ ধুতে বলছেন। বাইরে বেরলে নাক, মুখ মাস্কে ঢাকতে বলছেন। যেখানে হাতের কাছে পানি নেই সে ক্ষেত্রে হ্যান্ড স্যানিটাইজার দিয়ে হাত ভাল করে জীবানু মুক্ত করার পরামর্শ দিচ্ছেন তারা। সঙ্গত কারণে বেড়েছে হ্যান্ড স্যানিটাইজারের চাহিদা। এ সুযোগে নকল পণ্যের ব্যবসাও বেড়েছে।করোনা থেকে বাঁচতে ব্যবহার করতে হবে এমন সব হ্যান্ড স্যানিটাইজার যেগুলোতে অ্যালকোহলের মাত্রা বেশি থাকে। বিশেষজ্ঞদের মতে, যে

ডেন্টিস্ট ছাড়াই দাঁতের পাথর দূর করবেন যেভাবে!

  

পিএনএস ডেস্ক: দাঁত নিয়ে নানা রকম সমস্যায় ভুগে থাকেন অনেকেই। দাঁতব্যথা, হলদেটেভাব, কালো দাগ, দাঁতে পাথর ইত্যাদি সমস্যায় ভুগেন। অনেকের দেখা যায় পাথর জমে দাঁতে হলুদ আবরণ পরে গেছে। অনেকেরই দাঁতে কমবেশি হলুদ বা বাদামি খনিজ পদার্থের আবরণ তৈরি হয়। ডাক্তারি ভাষায় যাকে টার্টার বলা হয়। তবে সাধারণ মানুষ একে দাঁতের পাথর হিসেবে জেনে থাকেন।মূলত নিয়মিত দাঁত পরিষ্কার না করলেই এই টার্টার বাড়তে থাকে। যা দাঁতের 'পিরিওডোনটাইটিস' নামক রোগেরও কারণ। 'পিরিওডোনটাইটিস' হলে দাঁতের মাড়ির টিস্যুতে প্রদাহ হয়। ফলে মাড়ি

স্যানিটাইজার ব্যবহারে সাবধান, হয়ে যেতে পারেন অন্ধ!

  

পিএনএস ডেস্ক: ফসলে যাতে পোকা না ধরে তার জন্য কীটনাশক ব্যবহার করা হয়। কিন্তু সেই কীটনাশক মেশানো ফসল মানুষের শরীরের জন্য ক্ষতিকারক হয়ে ওঠে। ঠিক তেমনই, স্যানিটাইজার ক্ষতিকারক ভাইরাসকে দমন করতে পারে। কিন্তু সেই দমন মূলক বিষ কী আদৌ শরীরের জন্য যথাযথ? স্যানিটাইজারের মধ্যে থাকে টক্সিক অ্যালকোহল।মার্কিন ফুড এন্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশন (এফডিএ) হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহারে সতর্ক হওয়ার বার্তা দিয়েছে। স্যানিটাইজারের মধ্যে থাকা টক্সিক অ্যালকোহল শরীর স্বাস্থ্যের সমস্যার পাশাপাশি দৃষ্টি শক্তি কেড়ে