ইসলাম

‘পাঠ্যপুস্তক থেকে ডারউইনের ‘বিবর্তনবাদ’ বাদ দিতে হবে’

  

পিএনএস ডেস্ক : পাঠ্যপুস্তক থেকে অবিলম্বে নাস্তিকবাদী ধ্যানধারণার ‘বিবর্তনবাদ’ পাঠ বাদ দিতে সরকারের প্রতি দাবি জানিয়েছেন হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের মহাসচিব আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী।পাশাপাশি পাঠ্যবইয়ে ‘বিবর্তনবাদ’ অন্তর্ভুক্তির সঙ্গে যারা জড়িত, তাদের চিহ্নিত করে বিচারের আওতায় আনা এবং রাষ্ট্রীয় সব কর্মকাণ্ড থেকে তাদের দূরে রাখারও দাবি জানান তিনি।শুক্রবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি এ দাবি জানান।বাবুনগরী বলেন, ২০১৩ সালে শিক্ষার আধুনিকায়নের নামে নবম-দশম শ্রেণি থেকে শুরু করে মাস্টার্স

শুক্রবার দিনের ফজিলত ও করণীয়

  

পিএনএস ডেস্ক : আল্লাহতায়ালা জগৎ সৃষ্টির পূর্ণতা দান করেছিলেন এই দিনে। রহমত বরকত মাগফিরাত তথা ইবাদতের দিন হচ্ছে জুমআর দিন। এই দিনেই হজরত আদম (আ.) ও হাওয়া (আ.)-কে জান্নাতে একত্র করেছিলেন এবং এই দিনে মুসলিম উম্মাহ সাপ্তাহিক ঈদ ও ইবাদত উপলক্ষে মসজিদে একত্র হয় বলে দিনটাকে ইয়াওমুল জুমাআ বা জুমার দিন বলা হয়।মালেক ইবনে শিহাব থেকে বর্ণনা করেছেন, তিনি ইবনে সাব্বাক থেকে বর্ণনা করেছেন, রাসূলুল্লাহ (সা.) কোনো এক জুমার দিনে বললেন, ‘হে মুসলিম সম্প্রদায়! আল্লাহতায়ালা এই দিনটিকে ঈদের দিন হিসেবে নির্ধারণ

জেনে নিন কাবা শরিফের যেসব জায়গায় দোয়া কবুল হয়!

  

পিএনএস ডেস্ক : কাবা শরীফ একটি বড় ঘন আকৃতির ইমারত, যা সৌদি আরবের মক্কা শহরের মসজিদুল হারাম মসজিদের মধ্যখানে অবস্থিত। প্রকৃতপক্ষে মসজিদটি কাবাকে ঘিরেই তৈরি করা হয়েছে।ইসলামে কাবাকে পৃথিবীর সবচেয়ে পবিত্র স্থান হিসেবে মনে করা হয়। এটি মুসলমানদের কিবলা, অর্থাৎ যে দিকে মুখ করে নামাজ পড়ে বা সালাত আদায় করে, পৃথিবীর যে স্থান থেকে কাবা যে দিকে মুসলমানগণ ঠিক সে দিকে মুখ করে নামাজ পরেন। হজ্জ এবং উমরা পালনের সময় মুসলমানগণ কাবাকে ঘিরে তাওয়াফ বা প্রদক্ষিণ করেন। পবিত্র মক্কায় কাবা শরিফের বিভিন্ন

জেনে নিন কাজা নামাজের হিসাব!

  

পিএনএস ডেস্ক:ইসলামে ঈমানের পর সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হল নামাজ। রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম আল্লাহর পক্ষ থেকে বার বার নামাজের তাগিদ পেয়েছেন। কুরআনে পাকে আল্লাহ তাআলা বিভিন্ন জায়গায় সরাসরি ৮২ বার সালাত শব্দ উল্লেখ করে নামাজের গুরুত্ব তুলে ধরেছেন। তাই নামাজ কাজা করা ঠিক নয়। কাজা নামাজ বিষয়ে বিশিষ্ট আলেমদের মত, কাজা সালাতের জন্য আল্লাহর কাছে তওবা করতে হবে এবং নিয়মিত সালাত আদায় করতে হবে। আর বেশি বেশি পরিমাণ নফল সালাত আদায় করতে হবে। এর জন্য উমরি কাজা নেই। উমরি কাজা হচ্ছে,

জেনে নিন দারিদ্রতা থেকে মুক্তি পাওয়ার আমল!

  

পিএনএস ডেস্ক : আল্লাহ তায়ালা কুরআন দিয়েছেন মানুষের জীবনের সমস্ত সমস্যা সমাধানের জন্য। আর তাই রাসুল সা. ও সাহাবায়ে কেরাম রা. জীবনের সব সমস্যার সমাধানে কুরআন অনুসরণ করতেন।আজ পৃথিবীতে মানুষ শুধু বড়লোক আর সম্পদশালী হতে চায়। দারিদ্রতা থেকে মুক্তি চায়। কিন্তু কোন পথে এর মুক্তি সেটা কখনোই খেয়াল করে না।হজরত আব্দুল্লাহ ইবনে মাসউদ রা. বলেন, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন, যে ব্যক্তি প্রতিদিন রাতে সুরা ওয়াক্বিয়াহ তেলাওয়াত করবে তাকে কখনো দরিদ্রতা স্পর্শ করবে না। হজরত ইবনে

৪ জুন সৌদির ঈদ পালন ভুল ছিল? ১৬০ কোটি রিয়াল কাফফারা!

  

পিএনএস ডেস্ক : গত ৪ জুন পবিত্র ঈদ-উল-ফিতর উদযাপন করেছে সৌদি আরব । কারণ ৩ জুন ঈদের চাঁদ দেখাও ভুল ছিল। পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যম টুয়ান্টেফোর নিউজ জানিয়েছে, সৌদিতে ৪ জুন ঈদ পালন করা ছিল ভুল। রমজানের রোজা ভেঙে ভুল ঈদ করার কারণে সৌদি সরকার ১৬০ কোটি রিয়াল কাফফারাও দিয়েছে। দ্য ইসলামিক ইনফরমেশন ডটকম নামের ওয়েবসাইটের প্রতিবেদনেও এমনটা বলা হয়েছে। নিউজ চ্যানেলটির দাবি, সৌদি আরব ভুল দিনে ঈদ করেছে। তাই দেশটি ১৬০ কোটি সৌদি রিয়াল কাফফারা দিয়েছে। তবে তারা এটা প্রকাশ্যে স্বীকার করেনি।এদিকে, ইসলামিক

ঈদুল আজহার সম্ভাব্য তারিখ ১২ আগস্ট

  

পিএনএস ডেস্ক: মধ্যপ্রাচ্যে জিলহজ মাসের নতুন চাঁদ দেখা যেতে পারে ১ আগস্ট। সেই হিসাবে এ অঞ্চলে ঈদুল আজহা পালিত হবে ১১ আগস্ট। খালিজ টাইমস জানায়, আবুধাবির ইন্টারন্যাশনাল অ্যাস্ট্রোনমিক্যাল সেন্টার (আইএসি) জিলহজের নতুন চাঁদের সম্ভাব্য এ তারিখ ঘোষণা করে।আইএসি’র ডিরেক্টর মোহাম্মদ শওকত বলেন, “আশা করি জিলহজ মাসের চাঁদ দেখা নিয়ে কোনো ধরনের মতভেদ হবে না।”তিনি বলেন, “আরব বিশ্বের অধিকাংশ এলাকায় মানুষ খালি চোখে এবং টেলিস্কোপের মাধ্যমে খুব সহজে এবং পরিষ্কারভাবে জিলহজের নতুন চাঁদ দেখতে

শাওয়াল মাসের ছয় রোজার গুরুত্ব ও ফজিলত

  

পিএনএস ডেস্ক: পবিত্র রমজান মাসে যারা সিয়াম সাধনা করেছে, তাদের জন্য শাওয়াল মাসে রয়েছে শুভ সংবাদ। আর তা হলো–শাওয়াল মাসের ছয় রোজা।হজরত আবু আইয়ুব আনসারি (রা.) থেকে বর্ণিত হজরত রাসুলুল্লাহ (সা.) বলেছেন, ‘যে রমজানের রোজা এবং শাওয়ালের ছয়টি রোজা রাখল সে যেন সারা বছরই রোজা রাখল (পুরস্কারের দিক থেকে)।’ [মুসলিম ] উপরোক্ত হাদিস প্রসঙ্গে আন নাসাঈ তার ‘সুবুল উস সালাম’ গ্রন্থে বলেছেন, যদি রমজানের ৩০টি রোজার সঙ্গে শাওয়ালের ছয়টি রোজা যুক্ত হয়, তাহলে মোট রোজার সংখ্যা হয় ৩৬টি। শরিয়ত অনুযায়ী প্রতিটি

রোজা ও ঈদের সৌন্দর্য রক্ষায় ভণ্ড মোল্লাদের সৌদি পাঠানো জরুরি

  

পিএনএস (মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম প্রধান) : মুসলমানদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব ঈদ। এর একটি উৎসব ঈদ-উল-ফিতর। মাসব্যাপী রোজা ও সংযোম পালনের পর মুসলমানরা ঈদের নামাজ আদায় করেন। এবারও ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্য ও ব্যাপক উৎসাহ, উদ্দীপনা ও আনন্দময় পরিবেশের মধ্য দিয়ে সারাদেশে মুসলমানরা ঈদ-উল-ফিতর উদযাপন করবেন। আর সেটি হবে চাঁদ দেখা কমিটির ঘোষণা মতো। অথচ আমাদের দেশে একটি চক্র রোজা ও ঈদের নামে ভণ্ডামি করছে, যা সমাজে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির শামিল।মাসব্যাপী সিয়াম সাধনার সাথে সংযম, তারাবীহ, যাকাত, ফিতরা আদায়, জিকির, দরুদ

রমজানের পবিত্রতা ক্ষুণ্ন হচ্ছে

  

পিএনএস (মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম প্রধান) : রহমত, মাগফিরাত ও নাজাতের মাস রমজান। মহা নেয়ামত ও বরকতের মাস এটি। মহান আল্রাহ রোজার ফল অথবা নেয়ামত নিজে রোজারদের দেবেন। বরকতময় এ মাসে রোজার পরিবেশ খুব একটা বজায় নেই। ৮০ ভাগ মুসলমানের দেশে দিনের বেলা হোটেল, রেঁস্তোরা ও চায়ের দোকানে প্রকাশ্যে খাবার গ্রহণ ও বেচাকিনি চলছে। এমনটা তো হবার কথা নয়।রাজধানী ঢাকার সড়কগুলোর দুপাশে হোটেল-রেঁস্তোরা খোলা থাকবে দিনের বেলা, তা ভাবতেও অবাক লাগে। অথচ দিব্যি অবাধে খাবার গ্রহণ ও বিক্রি চলছে। মালিবাগের আবুল হোটল ছাড়া অন্য

Developed by Diligent InfoTech