ইসলাম

বুধবার চাঁদ দেখা গেলে ঈদ ২ সেপ্টেম্বর

  

পিএনএস ডেস্ক: বাংলাদেশের আকাশে বুধবার (২৩ আগস্ট) সন্ধ্যায় জিলহজ মাসের চাঁদ দেখার সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদফতর।ওই দিন চাঁদ দেখা গেলে ২ সেপ্টেম্বর ঈদুল আযহা অনুষ্ঠিত হবে। রোববার আবহাওয়া অধিদফতরের উপ-পরিচালক আবদুর রহমান স্বাক্ষরিত বিশেষ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদফতরের সব আবহাওয়া পর্যবেক্ষণাগারকে আগামী ২৩ ও ২৪ আগস্ট ২০১৭ তারিখে ১৪৩৮ হিজরী সনের জিলহজ্ব মাসের নতুন চাঁদের পর্যবেক্ষণ গ্রহণের নির্দেশ দেয়া হল। পর্যবেক্ষণের তথ্য টেলিফোন ও ইন্টারনেটের মাধ্যমে ঝড়

কুরবানী সংক্রান্ত গুরুত্বপূর্ন মাসায়েল

  

পিএনএস ডেস্ক: কুরবানী একটি গুরুত্বপূর্ণ ইবাদত। এটি আদায় করা ওয়াজিব। সামর্থ্য থাকা সত্ত্বেও যে ব্যক্তি এই ইবাদত পালন করে না তার ব্যাপারে হাদীস শরীফে এসেছে, ‘যার কুরবানীর সামর্থ্য রয়েছে কিন্তু কুরবানী করে না সে যেন আমাদের ঈদগাহে না আসে।’-মুস্তাদরাকে হাকেম, হাদীস : ৩৫১৯; আত্তারগীব ওয়াত্তারহীব ২/১৫৫ইবাদতের মূলকথা হল আল্লাহ তাআলার আনুগত্য এবং তাঁর সন্তুষ্টি অর্জন। তাই যেকোনো ইবাদতের পূর্ণতার জন্য দুটি বিষয় জরুরি। ইখলাস তথা একমাত্র আল্লাহর সন্তুষ্টির উদ্দেশ্যে পালন করা এবং শরীয়তের

রসুল (সা.)-এর দুটি অলৌকিক ঘটনা

  

পিএনএস ডেস্ক:আল্লাহ তার প্রেরিত নবী রসুলদের পৃথিবীতে পাঠিয়েছেন মানুষকে হেদায়েত করার জন্য। মানুষ যাতে নবী রসুলদের প্রতি আস্থা স্থাপন করে সে জন্য তাদের আল্লাহর পক্ষ থেকে এমন কিছু ক্ষমতা দান করা হয় যা অলৌকিক ক্ষমতা বলে বিবেচিত।আখেরি নবী হজরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামও ছিলেন এমনই অলৌকিক ক্ষমতার অধিকারী।নবী (সা.)-এর অন্যতম অলৌকিক ঘটনা ‘রদ্দে শামস’ হলো অস্তমিত সূর্যকে ফিরিয়ে আনয়ন করা। হজরত আসমা বিনতে ওমায়স (রা.) থেকে বর্ণিত আছে, একদা নবী করিম (সা.) খায়বারের কাছে ‘সাহবা’

কালেমার স্বীকৃতি ও বাস্তবায়নে যেভাবে মিলবে জান্নাত

  

পিএনএস ডেস্ক: মানুষ আশরাফুল মাখলুকাত তথা সৃষ্টির সেরা জীব। আল্লাহ তাআলা অনেক ভালবেসে মানুষকে সৃষ্টির সেরা জীব করে সৃষ্টি করেছেন। আর মুসলমানদের সৌভাগ্য যে, আল্লাহ তাআলা তাদেরকে কালেমার বিশ্বাস এবং বাস্তবায়নকারী হিসেবে সৃষ্টি করেছেন।হাদিসের ঘোষণা অনুযায়ী যারা তাওহিদের কালেমার ওপর বিশ্বাস স্থাপন করবে এবং তা কথা ও কাজে বাস্তবায়ন করবে তার জন্য জান্নাত সুনিশ্চিত। হাদিসে পাকে প্রিয়নবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম ইরশাদ করেছেন-হজরত আবু হুরায়রা রাদিয়াল্লাহু আনহু থেকে বর্ণিত তিনি বলেন,

শ্রমিকের মজুরি, ইসলাম কি বলে?

  

পিএনএস ডেস্ক : শ্রমিকের শ্রম তার শরীরের ঘাম শুকানোর পূর্বেই পরিশোধ করো। অর্থাৎ ‘বিশ্ব শ্রমিক দিবস’ বা মে দিবস। সারা বিশ্বেই মালিক কর্তৃক শ্রমিকগণ প্রতারিত বা নির্যাতিত হন। আজকের খুতবায় ইসলামে শ্রমিকদের সাথে মালিকদের কেমন আচরণ করতে বলা হয়েছে এবং শ্রমিকগণ কিভাবে কাজ করবেন তা এই অল্প পরিসরে তুলে ধরা হবে ইনশা আল্লাহ।বছর ঘুরে আবার আসছে মে মাস। শ্রমিকের অধিকার আদায় আন্দোলনের স্মৃতিবিজড়িত এ মাসের ১ তারিখ সারা বিশ্বে পালিত হয় ‘বিশ্ব শ্রমিক দিবস’ (International Workers Day) হিসাবে। এ দিবসটি আমাদেরকে

হজ যৌবনে না বৃদ্ধ বয়সে?

  

পিএনএস ডেস্ক: আর্থিকভাবে সাবলম্বী, শারীরিকভাবে সুস্থ ও সবল এবং মানসিকভাবে পরিপূর্ণ প্রস্তুত ব্যক্তির জন্য হজ আদায় করা ফরজ। কিন্তু সামর্থ লাভকারী ব্যক্তি কখন হজ আদায় করবেন? যুবক অবস্থায় না বৃদ্ধাবস্থায়।সমাজে একটা অসত্য কথা প্রচলিত রয়েছে যে, যুবক বয়সে নয়; হজে যেতে হয় বৃদ্ধ বয়সে। অথচ হজ হলো শারীরিক সক্ষমতা থাকা লোকদের ইবাদত।আবার কেউ কেউ মনে করেন- যুবক বয়সে হজ করে বাকী জীবন সহিহ ও সঠিক পথে চলা কঠিন। তাই যুবক বয়সে হজ নয়; আবার অনেকে এমন ধারণাও পোষণ করে থাকেন যে, অন্যায় অপরাধ করার পর বৃদ্ধ

ফেরেশতাগণ প্রতিবাদ করেন যখন

  

পিএনএস, ইসলাম: অন্যায়ভাবে যখন কোনো ব্যক্তি কারো প্রতি অত্যাচার করে, বিনা অপরাধে বকাবকি করে; তখন ওই ব্যক্তির অত্যাচার বা বকাবকির প্রতি উত্তরে আল্লাহ তাআলার নিযুক্ত ফেরেশতাগণ প্রতিবাদ করে থাকেন।এ প্রসঙ্গে ইমাম আবুল লাইছ সমরকান্দি রাহমাতুল্লাহি আলাইহি তাঁর ‘তাম্বিহুল গাফেলিন’-গ্রন্থে উম্মতে মুহাম্মাদির জন্য নসিহত ও গ্রহণীয় আমল হিসেবে হাদিসের একটি ঘটনা তুলে ধরেছেন।সেখানে তিনটি কাজের গুণের বিনিময়ে আল্লাহ তাআলা অনেক মর্যাদা ও সুনিশ্চিত ফলাফল দান করেন। যার বর্ণনা এসেছে প্রিয়নবি

ইসলামের দৃষ্টিতে সুর্যগ্রহণ ও চন্দ্রগ্রহণ

  

পিএনএস ডেস্ক : সূর্যগ্রহণ:চাঁদ পরিভ্রমণরত অবস্থায় পৃথিবী ও সূর্যের মাঝখানে এলে পৃথিবীর মানুষদের কাছে কিছু সময়ের জন্য সূর্য আংশিক বা কখনো সম্পূর্ণরূপে অদৃশ্য হয়ে যায়। এ অবস্থাকে সূর্যগ্রহণ বলে। আরবীতে এর নাম কুসুফ। ইংরেজীতে একে Solar eclipse বলে।চন্দ্রগ্রহণ:পৃথিবী তার পরিভ্রমণ অবস্থায় চাঁদ ও সূর্যের মাঝখানে এলে কিছু সময়ের জন্য পৃথিবী, চাঁদ ও সূর্য একই সরল রেখায় অবস্থান করতে থাকে। তখন পৃথিবী-পৃষ্ঠের মানুষ/প্রাণীদের থেকে চাঁদ কিছু সময়ের জন্য অদৃশ্য হয়ে যায়। এটাকে চন্দ্রগ্রহণ বলে। আরবীতে

অযুর সঠিক বিবরণ

  

পিএনএস ডেস্ক: অযুর আভিধানিক ও পারিভাষিক শব্দার্থ “অযু” যার অর্থ সুন্দর, সৌন্দর্য, পরিচ্ছন্ন, উজ্জ্বল, পবিত্র ইত্যাদি। পরিভাষায় অযু হল ইবাদতের উদ্দেশ্য সুনির্দিষ্ট অঙ্গসমূহ ধৌত ও মাছেহ করা।অযু সংক্রান্ত বিশেষ কথা হলো অযু একটি বিশেষ আমল। উহা ভিন্ন নামায হবে না। অযু ছাড়া সিজদা, কুরআন স্পর্শ করা সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ। অযু সম্পর্কে আল্লাহ্‌ বলেন "হে মুমিন গন । যখন তোমরা সালাতের জন্য উঠ তখন স্বীয় মুখমণ্ডল ও হস্তসমূহ কনুই পর্যন্ত ধৌত কর, তোমাদের মাথা মাসেহ কর এবং পদযুগল গিটসহ ধৌত কর।"

জুমার দিনের গুরুত্ব ও ফজিলত

  

পিএনএস ডেস্ক: আল্লাহতায়ালা জগৎ সৃষ্টির পূর্ণতা দান করেছিলেন এই দিনে। এই দিনেই হজরত আদম (আ.) ও হাওয়া (আ.)-কে জান্নাতে একত্র করেছিলেন এবং এই দিনে মুসলিম উম্মাহ সাপ্তাহিক ঈদ ও ইবাদত উপলক্ষে মসজিদে একত্র হয় বলে দিনটাকে ইয়াওমুল জুমাআ বা জুমার দিন বলা হয়।মালেক ইবনে শিহাব থেকে বর্ণনা করেছেন, তিনি ইবনে সাব্বাক থেকে বর্ণনা করেছেন, রাসূলুল্লাহ (সা.) কোনো এক জুমার দিনে বললেন, ‘হে মুসলিম সম্প্রদায়! আল্লাহতায়ালা এই দিনটিকে ঈদের দিন হিসেবে নির্ধারণ করেছেন।’ আরবি শব্দ জুমুআ-এর অর্থ একত্র হওয়া।

Developed by Diligent InfoTech