অবৈধ সম্পর্কের জেরে স্ত্রীকে খুন অতঃপর....!

  

পিএনএস ডেস্ক : পর পুরুষের সঙ্গে সম্পর্কের সন্দেহে স্ত্রীকে খুন করলেন স্বামী৷ পরে সেই ধারালো অস্ত্র হাতেই আদালতে আত্মসমপর্ণ করে ঘাতক স্বামী৷

সোমবার সকালে ঘটনাটি ঘটেছে জলপাইগুড়ি শহরের আদরপাড়া এলাকায়। পুলিশ ঘাতক সন্তোষ দাসকে গ্রেফতার করেছে৷ মৃত মধু দাসের (৩১) মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠিয়েছে পুলিশ৷ ঘটনার জেরে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়৷

জলপাইগুড়ি কোতয়ালি থানার আই সি বিশ্বাশ্রয় সরকার বলেন, এদিন সকালে অভিযুক্ত নিজেই থানায় এসে আত্মসমর্পণ করে৷ আমরা খুনের ঘটনাটি তদন্ত করে দেখছি।

পুলিশ সূত্রের খবর, জলপাইগুড়ি শান্তিপাড়ার বাসিন্দা মধু দাসের সঙ্গে ২০০৪ সালে বিয়ে হয় সন্তোষের। সম্প্রতি তাদের দাম্পত্য জীবনে অশান্তি শুরু হয়। জেরায় পুলিশের কাছে সন্তোষের দাবি, পর পুরুষের সঙ্গে মধুর সম্পর্ক ছিল৷ মাঝে মধ্যে তাঁকে প্রাণে মেরে ফেলার চেষ্টা করতেন৷

আবার বাড়ি ছেড়ে চলে যাওয়ার হুমকি দিতেন৷ সোমবার সকালেও ফের অশান্তি শুরু হয়৷ তখনই মাথা গরম হয়ে যাওয়ায় ধারালো অস্ত্র দিয়ে স্ত্রীকে আঘাত করেন তিনি৷ ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় মধুর৷

পিএনএস/জে এ /মোহন

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech