রোহিঙ্গাদের ওপর নৃশংসতার ঘটনায় আইসিসিতে ইইউর গভীর উদ্বেগ

  


পিএনএস ডেস্ক: মায়ানমারে রোহিঙ্গাদের ওপর নৃশংসতার জন্য আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতে (আইসিসি) গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ)।

একইসঙ্গে মায়ানমারে সেনাদের নৃশংসতার দায়ে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের নির্দেশনার জন্য আইসিসির কাছে দাবি জানিয়েছে ইউরোপীয় দেশগুলো।

১২৩টি সদস্য দেশের অংশগ্রহণে অনুষ্ঠানরত আইসিসির ১৭তম সাধারণ সভায় ইউরোপীয় ইউনিয়ন গত বুধবার এ দাবি জানায়।

জেনেভার কূটনৈতিক সূত্রগুলো বৃহস্পতিবার জানিয়েছে, ২৮ দেশের ইউরোপীয় জোটের কয়েকটি দেশের প্রতিনিধিরা রোহিঙ্গাদের ওপর সংগঠিত নৃশংসতার অপরাধ নিয়ে গভীর উদ্বেগ জানিয়েছেন। এর ফলে সপ্তাহব্যাপী ওই অধিবেশনের প্রথম দিনেই আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রবল চাপ ও নিন্দার মুখে পড়েছে মায়ানমার।

রোম সনদে স্বাক্ষরকারী দেশ না হলেও মায়ানমার এই প্রথম আইসিসি’র সাধারণ সভায় যোগ দিতে আবেদন করেছে। আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের অব্যাহত চাপের কারণে মায়ানমার অধিবেশনে যোগ দিতে চাইছে বলে নেদারল্যান্ডসের কূটনীতিক সূত্রগুলো মনে করছে।

গত বছরের ২৪ আগস্ট থেকে রাখাইনে রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে মায়ানমার সেনাবাহিনী অভিযান শুরু করে। এ সহিংস অভিযানের পরিপ্রেক্ষিতে সাত লক্ষাধিক রোহিঙ্গা পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়।

বিভিন্ন সময় সহিংসতার শিকার আরো চার লাখ রোহিঙ্গা তার আগে থেকেই বাংলাদেশের কক্সবাজারে অবস্থান করছে। চলতি বছরের সেপ্টেম্বর মাসে প্রকাশিত এক রিপোর্টে রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে সেনাবাহিনীর নির্মম অভিযানকে প্রথমবারের মতো গণহত্যা বলে অভিহিত করে জাতিসংঘের একটি ফ্যাক্ট ফাইন্ডিং মিশন।

রিপোর্টে বলা হয়, গণহত্যার উদ্দেশ্যেই ওই অভিযান চালানো হয়েছিল। সেই সঙ্গে গণহত্যার জন্য সেনাপ্রধান মিং অং হ্লাইংসহ মায়ানমার সেনাবাহিনী শীর্ষ ছয় কর্মকর্তাকে দায়ী করে তাদেরকে আন্তর্জাতিক আদালতের মুখোমুখি করতে সুপারিশ জানানো হয়।

পিএনএস/আনোয়ার

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech