ফ্রান্সে সরকারবিরোধী বিক্ষোভ, বন্ধ আইফেল টাওয়ার

  

পিএনএস ডেস্ক :ফ্রান্সে সরকারবিরোধী ইয়েলো ভেস্টস গোষ্ঠীর বিক্ষোভ চলার সময় নতুন করে সহিংসতার আশঙ্কা করছে দেশটির প্রধানমন্ত্রী এদুয়ার্দ ফিলিপ। এ জন্য শনিবার (৮ ডিসেম্বর) আইফেল টাওয়ার বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

শুক্রবার বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, দাঙ্গাকে কেন্দ্র করে শনিবার দেশটির রাজধানী প্যারিসে সাঁজোয়া যানসহ দেশব্যাপী ৮৯ হাজার পুলিশ মোতায়েন রাখা হবে বলে ঘোষণা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। এরই মাঝে রাজধানীর সজ-এলিজি এলাকার দোকানপাট ও রেস্তোরাঁগুলো বন্ধ রাখতে অনুরোধ জানিয়েছে পুলিশ। এছাড়া বেশ কিছু জাদুঘরও একই কারণে বন্ধ রাখা হবে।

আইফেল টাওয়ারের পরিচালক জানিয়েছেন, দাঙ্গাকারীদের সহিংস প্রতিবাদের ফলে শনিবার টাওয়ারে প্রয়োজনীয় নিরাপত্তা নিশ্চিত করার বিষয়টি হুমকির মুখে পড়েছে। তাই এটি বন্ধ রাখা হবে।

ফ্রান্সের সংস্কৃতিমন্ত্রী বলেন, ক্ষয়ক্ষতির আশঙ্কা যেহেতু আছে, তাই আমরা কোনো ঝুঁকি নিতে পারি না।

জ্বালানির কর বৃদ্ধির প্রতিবাদে ফ্রান্সে ১৭ নভেম্বর থেকে চলছে ‘ইয়েলো ভেস্টস’ আন্দোলন। এই আন্দোলন ফ্রান্সের ইতিহাসে গত এক দশকেরও বেশি সময়ের মধ্যে সবচেয়ে বড়। বর্তমানে এ আন্দোলন জোরালো হয়ে সরকারবিরোধী বিক্ষোভে পরিণত হয়েছে।ফলে সহিংস রূপ ধারণ করে।

এই বিক্ষোভকে কেন্দ্র করে ১ ডিসেম্বর প্যারিসের রাস্তায় ভয়াবহ সহিংসতা হয়। সহিংসতায় প্রাণ হারায় তিনজন। দেশটিতে কয়েক দশকের মধ্যে সবচেয়ে বড় সহিংসতা এটি। পরবর্তী সময়ে সরকার কর বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত থেকে সরে এলেও অন্য দাবি তুলে দাঙ্গা চালিয়ে যাচ্ছে বিক্ষোভকারীরা।

তাদের দাবিগুলো হচ্ছে- সরকারকে ন্যুনতম পেনশন, কর ব্যবস্থায় ব্যাপক পরিবর্তন, অবসরের বয়সসীমা কমানোসহ ৪০টিরও বেশি দাবি-দাওয়া ছুড়ে দিয়েছে তারা।

ইয়েলো ভেস্টস আন্দোলনকারীরা হলুদ রঙের জ্যাকেট পরে রাস্তায় নামে। কারণ ফরাসি আইন অনুযায়ী প্রত্যেক গাড়িতে হলুদ রঙের কাপড় থাকতে হয়।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech