ইরানি তেল ট্যাংকারের ক্রুরা নিরাপদে আছেন

  



পিএনএস ডেস্ক: সৌদি আরবের লোহিত সাগর তীরবর্তী জেদ্দা বন্দরের কাছাকাছি একটি ইরানি তেলবাহী ট্যাংকারে দু’টি বিস্ফোরণ ঘটেছে। ধারণা করা হচ্ছে, ক্ষেপণাস্ত্র আঘাত হানার পর বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে।

তবে তেল ট্যাংকারে আগুন লাগে নি। বিস্ফোরণের পর ট্যাংকার থেকে তেল লোহিত সাগরে নিঃসৃত হচ্ছিল। এরইমধ্যে বিশেষজ্ঞরা তেল নিঃসরণ বন্ধ করতে সক্ষম হয়েছেন।

কারিগরী বিশেষজ্ঞরা বিস্ফোরণের কারণ অনুসদ্ধানে কাজ শুরু করেছে।

ইরানের জাতীয় ট্যাংকার কোম্পানি বলেছে, শুক্রবার (১১ অক্টোবর) ভোর ৫টা এবং ৫টা ২০ মিনিটে দু’টি মূল ট্যাংকে বিস্ফোরণ ঘটেছে। তবে জাহাজের ক্রুদের কোনো ক্ষতি হয় নি। তারা নিরাপদে আছেন।

ইরানের স্টুডেন্টস নিউজ এজেন্সি (আইএসএনএ) নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সূত্রের বরাত দিয়ে জানিয়েছে, লোহিত সাগরে সৌদি বন্দর জেদ্দার কাছে ইরানি তেল ট্যাংকারে বিস্ফোরণের কারণ সম্ভবত সন্ত্রাসী হামলা।

উল্লেখ্য, হরমুজ প্রণালীতে সাম্প্রতিক তেল ট্যাংকারের রহস্যজনক একের পর এক হামলার পর এবার ইরানি জাহাজে এই হামলার ঘটনা ঘটলো।

ইরানি সংবাদ সংস্থা জানিয়েছে, এই ঘটনায় তদন্ত চলছে। এদিনের ঘটনা সন্ত্রাসী কার্যকলাপ হতে পারে বলে তারা সন্দেহ করছে।

বিশ্লেষকরা বলছেন, এবারের ঘটনার পর ইরান ও সৌদি আরবের মধ্যে চলমান উত্তেজনা আরও বাড়বে।

গত কয়েক মাসে উপসাগরীয় এলাকায় বেশ কয়েকটি তেল ট্যাংকারে বিস্ফোরণের ঘটনায় ইরানকে দায়ী করে সৌদি আরব ও যুক্তরাষ্ট্র। অবশ্য সে সব অভিযোগ অস্বীকার করে ইরান।

পিএনএস/ হাফিজুল ইসলাম

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech