করোনা: ৩ দিনেই বিশ্বজুড়ে রোগী মিলল আরও ছয় লাখ

  

পিএনএস ডেস্ক : মহামারি করোনাভাইরাসের লাগাম তো টানা যাচ্ছেই না বরং এর সংক্রমণ বাড়ছে আশঙ্কাজনক হারে। বৃহস্পতিবারের পর টানা তৃতীয় দিনের মতো গোটা বিশ্বে দুই লাখেরও বেশি কোভিড-১৯ পজিটিভ রোগী শনাক্ত হয়েছেন। শনিবার অর্থাৎ গত ২৪ ঘণ্টায় এই সংখ্যাটা ছিল ২ লাখ ১২ হাজার ৩২৬ জন।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা শনিবার এই তথ্য জানিয়ে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ মোকাবিলায় দেশগুলোকে আরও সতর্ক ও কঠোর হওয়ার আহ্বান জানিয়েছে। ওয়ার্ল্ডোমিটার এর তথ্য অনুযায়ী, গত বৃহস্পতিবার বিশ্বে মোট ২ লাখ ৮ হাজার ৮৮৪ জন শনাক্ত হয়। এরপর গত শুক্রবার এই সংখ্যাটা ছিল ২ লাখ ৯ হাজার ২৮ জন।

শনিবার অর্থাৎ গত ২৪ ঘণ্টায় সবচেয়ে বেশি রোগী শনাক্ত হয়েছে যুক্তরাষ্ট্র, ব্রাজিল এবং ভারতে। যুক্তরাষ্ট্রে এযাবৎকালে সর্বোচ্চ ৫৫ হাজার এবং একইসঙ্গে ভারতেও প্রাদুর্ভাব শুরুর পর শনিবার একদিনে সর্বোচ্চ ২২ হাজারের বেশি করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে। এছাড়া দৈনিক মৃত্যুর সংখ্যা রয়েছে ৫ হাজারের নিচে।

গত শুক্রবারই বিশ্বজুড়ে করোনায় আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত মানুষের সংখ্যা এক কোটি ১০ লাখ ছাড়িয়ে যায়। সবশেষ এই সংখ্যাটা এক কোটি ১৩ লাখ প্রায়। এছাড়া গত ছয় মাসের বেশি সময়ে বিশ্বের প্রায় সব দেশ অঞ্চলে বিস্তার ঘটানো করোনাভাইরাস কেড়ে নিয়েছে ৫ লাখ ৩০ হাজারেরও বেশি মানুষের প্রাণ।

অবশ্য এখন দৈনিক করোনা রোগী শনাক্ত হওয়ার হার বেশি হওয়ার পেছনে পরীক্ষার হার বৃদ্ধির বিষয়টিকে তুলে ধরছেন অনেকে। তবে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, পরীক্ষা কার্যক্রম জোরদার হলেও করোনা মহামারির প্রকৃত চিত্র এখনো পাওয়া যায়নি। কারণ সংক্রমণ ও মৃত্যুর যে তথ্য আমরা জানতে পারছি তা সরকারগুলোর হিসাব।

করোনায় আক্রান্ত দেশগুলোর তালিকায় প্রায় ২৯ লাখ কোভিড-১৯ পজিটিভ নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র রয়েছে সবার উপরে। এরপরই রয়েছে ব্রাজিল ও রাশিয়া। ব্রাজিলে বিস্তার আশঙ্কাজনক হারে ছড়ালেও রাশিয়ায় বর্তমানে সংক্রমণের সংখ্যা কম। তবে তালিকায় চতুর্থ স্থানে থাকলেও পাল্লা দিয়ে রোগী ও মৃত্যু বাড়ছে ভারতে।

টানা তিনদিনই সংক্রমণের শীর্ষ দেশগুলোর মধ্যে অর্ধেকের বেশি রোগী শনাক্ত হয়েছে যুক্তরাষ্ট্র, ব্রাজিল এবং ভারতে। সংক্রমণ ও মৃত্যু বেড়ে চললে ভারতে করোনার বিস্তার ঠেকাতে জারি লকডাউন ধীরে ধীরে শিথিল হচ্ছেই। মূলত লকডাউন শিথিলের পর থেকেই দেশটিতে ভাইরাসটির সংক্রমণ বেড়েছে আশঙ্কাজনক হারে।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন