প্রথমবারের মতো মাটির নিচ থেকে ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়েছে ইরান

  

পিএনএস ডেস্ক : প্রথমবারের মতো মাটির নিচ থেকে ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়েছে ইরান। দেশটির প্রভাবশালী ইসলামি বিপ্লবী গার্ড বাহিনী (আইআরজিসি) সামরিক মহড়ার অংশ হিসেবে ওই ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালিয়েছে।

আইআরজিসির এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে যে, সামরিক মহড়ার দ্বিতীয় দিনে শত্রুর কল্পিত অবস্থানে আকাশ এবং সমুদ্রপথে হামলা চালানো হয়েছে।

ওই বিবৃতিতে দাবি করা হয়েছে যে, বিশ্বে প্রথমবারের মতো ইরানের বিপ্লবী গার্ড বাহিনী ভূগর্ভ থেকে এ ধরনের ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালিয়েছে। এর আগে কেউ এ ধরনের ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালায়নি।

মহানবী (স.)-১৪ নামে বিপ্লবী গার্ড বাহিনী দু'দিনের মহড়া চালিয়েছে। মহড়ার প্রথম পর্ব শুরু হয়েছে মঙ্গলবার। ইরানের হরমুজগান প্রদেশ, কৌশলগত হরমুজ প্রণালী ও পারস্য উপসাগরের বিস্তীর্ণ এলাকায় এই মহড়া চালানো হয়। প্রথমদিনের মহড়ায় আইআরজিসি দীর্ঘপাল্লার ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়েছিল।

সে সময় হরমুজ প্রণালীতে একটি প্রতীকী মার্কিন রণতরী লক্ষ্য করে ক্ষেপণাস্ত্র হামলার মহড়া চালিয়েছে ইরানের বিপ্লবী গার্ড বাহিনী। মঙ্গলবার একটি হেলিকপ্টার থেকে ওই ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করা হয় বলে জানিয়েছে ইরানের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন।

আইআরজিসির এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, বিমান বাহিনী আধুনিক কলাকৌশল প্রয়োগ এবং সামরিক সরঞ্জাম প্রদর্শন করেছে। এর মধ্য দিয়ে শত্রুর সম্ভাব্য হুমকি মোকাবিলায় ইরানের এই এলিট ফোর্সের সামরিক সক্ষমতার চিত্র ফুটে উঠেছে।

আইআরজিসি যে ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালিয়েছে তার প্রশংসা করা হয়েছে ওই বিবৃতিতে। এদিকে, ইরানের এই সামরিক মহড়াকে ‘দায়িত্বজ্ঞানহীন এবং বেপরোয়া আচরণ’ মন্তব্য করে কঠোর সমালোচনা করেছে মার্কিন নৌবাহিনী। তারা এটিকে ইরানের জোর করে ভয় দেখানোর চেষ্টা বলে অভিযোগ করেছে।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন