মিয়ানমারের গুলিতে ১১ বিক্ষোভকারী নিহত

  

পিএনএস ডেস্ক:মিয়ানমারের নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে ১১ অভ্যুত্থানবিরোধী বিক্ষোভকারী নিহত হয়েছে। আহত হয়েছেন আর ২০ জন। খবর রয়টার্সের।

উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের তেইজ শহরে নিরাপত্তা বাহিনী ছয় ট্রাকভর্তি সেনা সদস্য নিয়ে অভিযান শুরু করে। তখন বিক্ষোভকারীরা শিকারি বন্দুক, ছুরি ও পেট্রোল বোমা নিয়ে নিরাপত্তা বাহিনীর বিরুদ্ধে পাল্টা প্রতিরোধ গড়ে তোলার চেষ্টা করে। এসময় সেনাসদস্যদের আরও পাঁচটি ট্রাক ঘটনাস্থলে এসে হাজির হয়।

বৃহস্পতিবার সকাল পর্যন্ত সংঘর্ষ চলে। দুই পক্ষের মধ্যে গোলাগুলিতে অন্তত ১১ জন বিক্ষোভকারী নিহত ও আরও ২০ জন আহত হন। সংঘর্ষে কোনো সেনা সদস্যের হতাহত হওয়ার খবর পাওয়া যায়নি।

বৃহস্পতিবার জুতায় ফুল দিয়ে নিহতদের স্মরণের মাধ্যমে জান্তা সরকারের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়েছেন বিক্ষোভকারীরা। এদিকে এদিক পাইং তাখন নামে এক জনপ্রিয় মডেল ও অভিনেতাকে আটক করেছে নিরাপত্তা বাহিনী।

পাইং তাখনের বোন থি থি লুইন রয়টার্সকে বলেন, নিরাপত্তা বাহিনী ভোর ৪:৩০ মিনিটের দিকে ইয়াঙ্গুনে তাদের পৈত্রিক বাড়ি থেকে তার ভাইকে আটক করে নিয়ে যায়। সেই বাড়িতে অসুস্থ অবস্থায় বেশ কিছুদিন ধরে ছিলেন পাইং।

তিনি বলেন, নিরাপত্তা বাহিনী আটটি ট্রাক নিয়ে হাজির হয় যাতে ৫০ জন সেনাসদস্য ছিলো। পাইংকে কোথায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে তা জানা যায়নি। পাইং তাখন ম্যালেরিয়া ও হৃদরোগের সমস্যায় ভুগছিলেন।

অভ্যুত্থানবিরোধী বিক্ষোভ শুরু হওয়ার পর থেকে মিয়ানমারে নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে এ পর্যন্ত প্রায় ছয়শো বিক্ষোভকারী নিহত হয়েছেন। এছাড়া আটক রয়েছেন ২ হাজার ৮৪৭ জন।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন