‘আমাকে কেন কলঙ্কিত করলেন শামীম ভাই, আপনার ওপর আল্লাহর গজব পড়বে’

  

পিএনএস ডেস্ক : আমাকে কেন কলঙ্কিত করলেন শামীম ভাই (শামীম ওসমান)? আমার কি এমন দোষ ছিল। আমার মরে যেতে ইচ্ছা করছে। শামীম ভাই আমার ওপর অনেক ধরনের কলঙ্ক লেপন করেছেন। এসব ঠিক হয়নি। আমি এর বিচার চাই। আমার চরিত্র হনন করা হয়েছে। শামীম ভাই আপনি কেন এ কাজটি করলেন?


সোমবার বিকেলে নারায়ণগঞ্জ শহরের ২নং রেলগেইটে আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয়ে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে মহানগর আওয়ামী লীগের প্রস্তুতিমূলক সভায় মহানগর যুব মহিলা লীগের আহ্বায়ক নূর নাহার সন্ধ্যা নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য শামীম ওসমানের প্রতি এসব প্রশ্ন করেন।


নূর নাহার সন্ধ্যা আরও বলেন, আমি আজ রাস্তায় বের হতে পারি না। আমার লজ্জায় মরে যেতে ইচ্ছা করে। যাদের জন্য সারাজীবন রাজপথে ছিলাম আজ তারাই আমাকে কলঙ্কিত করলো। আপনি কিভাবে পারলেন শামীম ভাই?


শামীম ওসমানকে উদ্দেশ করে তিনি বলেন, আমাদের প্রধানমন্ত্রী নারী, স্পিকার নারী আর আমিও একজন নারী। আপনি আমাকে যেভাবে কলঙ্কিত করেছেন, আল্লাহ আপনাকে ক্ষমা করবেন না।


সন্ধা আরও বলেন, শামীম ভাই আপনার সঙ্গে রাজপথে গেছি, আপনার ভাইয়ের সঙ্গে গেছি। কিন্তু আপনি আমার চরিত্রে কলঙ্ক দিয়েছেন। এই কলঙ্ক শুধু আমাদের দেন নাই, আমার দুইটা এতিম বাচ্চার ওপরেও দিয়েছেন। আপনার ওপর আল্লাহর গজব পড়বে।


মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি আনোয়ার হোসেনের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট খোকন সাহার সঞ্চালনায় সভায় মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি রোকন উদ্দিন আহমেদ, নুরুল ইসলাম চৌধুরী, শেখ হায়দার আলী পুতুল, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আহসান হাবিব, জিএম আরমান, সাংগঠনিক সম্পাদক জিএম আরাফাত, অ্যাডভোকেট মাহমুদা মালা, স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক আতিকুজ্জামান সোহেল, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক আক্তারুজ্জামান, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক আব্দুর রশিদ, ১৮নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর কবির হোসেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।


প্রসঙ্গত, ২৮ মে যুব মহিলা লীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি নাজমা আক্তার ও সাধারণ সম্পাদক অপু উকিল নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী যুব মহিলা লীগের কমিটির অনুমোদন দেন। ৫১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটিতে ইয়াসমিন চৌধুরী লিন্ডাকে আহ্বায়ক এবং ৩০ মে নুরুন্নাহার সন্ধাকে আহ্বায়ক করে ৪৯ সদস্য বিশিষ্ট কমিটির অনুমোদন দেন নাজমা আক্তার ও অপু উকিল।


গত ২ জুলাই আরেকটি করে জেলা ও মহানগর আওয়ামী যুব মহিলা লীগের কমিটি ঘোষণা দেন নাজমা আক্তার ও অপু উকিল। এতে আহ্বায়ক করা হয়েছে জেলা পরিষদের সদস্য সাদিয়া আফরিন ও যুগ্ম আহ্বায়ক করা হয়েছে শারমিন আক্তার মেঘলা ও আসমা আক্তারকে। মহানগর কমিটিতে আহ্বায়ক করা হয়েছে অ্যাডভোকেট সুইটি ইয়াসমিন ও যুগ্ম আহ্বায়ক মুনিরা সুলতানাকে। পরের কমিটি নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের এমপি শামীম ওসমান সমর্থিত। তাই আগের কমিটির বিপক্ষে শামীম ওসমান বিরুপ মন্তব্য করেছিলেন। নুরুন্নাহার সন্ধ্যা ও ইয়াসমিন চৌধুরী লিন্ডার চরিত্র হরণ করে নানা ধরনের বক্তব্য দেন শামীম ওসমান। এই নিয়ে যুব মহিলা লীগ নেত্রীরা শামীম ওসমানকে নিয়ে সমলোচনাও করেন।

পিএনএস/জে এ /মোহন

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech