খালেদা জিয়ার লন্ডন সফর নিয়ে দোলাচলে রাজনীতি

  


পিএনএস ডেস্ক: চোখ ও পায়ের চিকিৎসা করাতে এখন লন্ডন রয়েছেন দেশের রাজনীতির প্রধান বিরোধীদলীয় নেত্রী বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। তার এই সফর চিকিৎসার জন্য হলেও এটা নিয়ে দেশের রাজনীতিক অঙ্গন বেশ সরগরম ।

প্রায় ১১ বছর ক্ষমতার বাইরে থাকা বিএনপি আগামী নির্বাচনে ক্ষমতায় যেতে সবোর্চ্চ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। খালেদা জিয়ার এই লন্ডন সফরকে নিজ দলের নেতারা যেমন সম্ভবনার স্বপ্ন দেখছেন তেমনি সন্দেহর চোখে দেখছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ।

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া ১৫ সেপ্টেম্বর দেশে না ফেরায় লন্ডন সফর এবং তার দেশে ফেরা নিয়ে সরকারি দলসহ বিভিন্ন মহলে নানা গুঞ্জন দিনে দিনে চাউর হচ্ছে। তা সত্ত্বেও চিকিৎসা শেষ না হওয়ায় এ মাসেও তার দেশে ফেরার সম্ভাবনা ক্ষীণ। দলের নীতিনির্ধারণী সূত্রের দাবি, আগামী জাতীয় নির্বাচন, সহায়ক সরকারের রূপরেখা এবং এ নিয়ে সরকারবিরোধী আন্দোলন, দলের কূটনৈতিক তৎপরতা এবং সাংগঠনিক কিছু গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে রোডম্যাপ তৈরি করছেন খালেদা জিয়া। এর বাইরে আরো কয়েকটি বিষয় ফয়সালা করার পর দেশে ফিরতে চান তিনি।

এদিকে, ক্ষমতাসীন দলের একাধিক কেন্দ্রীয় নেতার মতে, খালেদা জিয়ার এই সফর পারিবারিক হলেও তিনি লন্ডন গেছেন দুইটি টার্গেট নিয়ে। এগুলো হলো, আন্তর্জাতিক মিডিয়ার সঙ্গে যোগাযোগ ও বিদেশে লবিস্ট নিয়োগ করা। তাদের ধারণা, এই সফরে সরকারের বিরুদ্ধে অপপ্রচার করে বিশ্ব জনমত সৃষ্টি ও চড়া মূল্যে লবিস্ট নিয়োগের মাধ্যমে বিভিন্ন রাষ্ট্রের সরকারের নীতিনির্ধারকদের সঙ্গে সম্পর্কের উন্নতি করতে পারেন খালেদা জিয়া। এছাড়া এই সফরে হতে পারে একাদশ সংসদ নির্বাচন ভণ্ডুল করার শলা-পরামর্শও। এ পরিকল্পনা বাস্তবায়নে আপাতত লন্ডনকে নিরাপদ মনে করে সেখানে যাচ্ছেন তিনি।

তবে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল-আলম হানিফ বলেন, ‘খালেদা জিয়ার এই সফর নিয়ে আমাদের কোনো আগ্রহ নেই। কারণ আমরা তো আর বিএনপির রাজনীতি করি না। আমরা জনগণের রাজনীতি করি, জনগণকে নিয়েই আমাদের চিন্তা।’

প্রসঙ্গত, দেশে হুলিয়া থাকায় ছেলের সঙ্গে প্রবাসেই খালেদা জিয়া সাক্ষাৎ করছেন গত এক দশক ধরে। ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের অনেক নেতা বলে আসছেন, প্রবাসে থাকা সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেকের ইশারাই বিএনপি পরিচালিত হয়। নির্বাচনকালীন সহায়ক সরকারের রূপরেখা ঘোষণা এবং আন্দোলনের কর্মসূচি দেয়ার আগে খালেদার এই লন্ডন সফর নিয়ে রাজনৈতিক মহলে আগ্রহ।

আওয়ামী লীগ নেতাদের সমালোচনা করে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রিজভী বলেন, চিকিৎসার জন্য বেগম খালেদা জিয়া লন্ডন যাবার পর বর্তমান সরকারের ঘুম হারাম হয়ে গেছে। এ নিয়ে প্রধানমন্ত্রী থেকে শুরু করে আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতারা কতই না প্রলাপ বকছেন। প্রথমে আওয়ামী লীগের নেতারা বললেন, তিনি (খালেদা জিয়া) মামলার ভয়ে দেশ ছেড়ে পালিয়ে গেছেন, এখন তারা বলছেন ষড়যন্ত্র করতেই লন্ডন গেছেন। এরপরে হয়ত তারা আরেক নতুন তত্ত্ব দেবেন।

এখন বিএনপি নেতাকর্মীরা অপেক্ষায় আছে চেয়ারপারসন তাদের জন্য কি বার্তা নিয়ে দেশে ফিরছেন আর ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ অপেক্ষায় আছে খালেদা জিয়া কি রুল প্লে করে তার ওপর ভিত্তি করে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নিতে।

পিএনএস/আনোয়ার

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech