‘খালেদা জিয়া ভূতের সরকার কায়েম করতে চায়’

  

পিএনএস ডেস্ক : জাসদ সভাপতি ও তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলেছেন, নির্বাচন নিরপেক্ষ করার নামে তথাকথিত সহায়ক সরকার মানে হচ্ছে খালেদা জিয়া ভূতের সরকার কায়েম করতে চায়। বাংলাদেশে কোনো ভূতের সরকার, অস্বাভাবিক সরকার, সামরিক সরকার আর হবে না।

আজ বিকেলে ফুলবাড়িয়া ডিগ্রি কলেজ মাঠে অনুষ্ঠিত উপজেলা জাসদ আয়োজিত জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
শেখ হাসিনাকে খালেদা জিয়ার মাফ করে দেয়া বছরের রাজনীতির সবচেয়ে বড় ঠাট্টা বলেও মন্তব্য করেন তথ্যমন্ত্রী। খালেদা জিয়াকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, শেখ হাসিনার কাছে আপনার মাফ চাওয়া উচিত মানুষ পোড়ানোর জন্য, যুদ্ধাপরাধীদের পক্ষে অবস্থান নেবার জন্য।

জনসভায় উপজেলা জাসদ সভাপতি মো. আব্দুর রহমান সরকারের সভাপতিত্বে প্রধান বক্তা ছিলেন, ময়মনসিংহ-৬-ফুলবাড়ীয়া আসনের ১৪ দলের মনোনয়ন প্রার্থী, ময়মনসিংহ মহানগর জাসদ সভাপতি ও জাসদ কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সম্পাদক সৈয়দ শফিকুল ইসলাম মিন্টু।

এসময় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন জাসদ কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি আফরোজা হক রীনা, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুর রহমান চুন্নু, শওকত রায়হান, নইমুল আহসান জুয়েল, দপ্তর সম্পাদক আব্দুল্লাহহিল কাইয়ুম, ময়মনসিংহ জেলা জাসদ সভাপতি অ্যাডভোকেট গিয়াস উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট সাদিক হোসেন, জাতীয় কৃষক জোট সাংগঠনিক সম্পাদক রতন সরকার, ময়মনসিংহ জেলা জাসদ যুগ্ম সম্পাদক অ্যাডভোকেট নজরুল ইসলাম চুন্নু, অ্যাডভোকেট শিব্বির আহমেদ লিটন, শামসুল আলম খানসহ প্রমুখ। সঞ্চালনা করেন উপজেলা জাসদ সাধারণ সম্পাদক মো: নজরুল ইসলাম মাস্টার।

তথ্যমন্ত্রী আরো বলেন, শেখ হাসিনার অধীনে যারা নির্বাচন করবেন না বলে ফতোয়া দিচ্ছে তারা নির্বাচন বানচাল করতে চায়। তারা ভূতের সরকার করতে চায়। তাই নির্বাচন নিয়ে বিতর্ক শেষ করতে যথাসময়েই ভোট হবে।

দেশের স্বার্থে শেখ হাসিনার সাথে জাসদের ঐক্য আছে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, সংসদ নির্বাচন আসলেই বিতর্ক শুরু হয়ে যায়। একবার রাজাকারের সরকার, আরেকবার মুক্তিযুদ্ধের সরকার। সরকার বদল হলেই ইতহাস বদলায়। তবে জঙ্গিদের সঙ্গী বেগম খালেদা-জামায়াত চক্রকে আগামীতেও ক্ষমতার বাইরে রাখতে হবে। তারা আবার ক্ষমতায় এলে দেশে জঙ্গি উৎপাদন শুরু করবে, রাজাকারদের পুনর্বাসন করে দেশে লুটপাটের রাজত্ব কায়েম করবে।

এর আগে মন্ত্রী বেলা সাড়ে ১১ টায় ময়মনসিংহ সার্কিট হাউজে বিটিভি’র ময়মনসিংহ উপকেন্দ্র ও জেলা তথ্য অফিসের কর্মকর্তাগনের সঙ্গে মত বিনিময় করেন। বিকেলে ফুলবাড়িয়া উপজেলা পরিষদের সকল বিভাগের কর্মকর্তাগনের সঙ্গে মতবিনিময় করেন, ফেরার পথে ফুলবাড়িয়ায় শাহ আলমিয়া এতিমখানা পরিদর্শন করেন।

ময়মনসিংহ মহানগর জাসদ সভাপতি ও কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সম্পাদক সৈয়দ শফিকুল ইসলাম মিন্টু বলেন, মহাজোটের মনোনয়ন পেলে এবং সংসদ সদস্য নির্বাচিত হলে ফুলবাড়ীয়াবাসীর একজন সেবক হিসেবে কাজ করতে চাই। ফুলবাড়ীয়াকে উন্নত ডিজিটাল উপজেলা হিসেবে গড়ে তুলতে সর্বাত্মক প্রচেষ্টা চালিয়ে যাব।

পিএনএস/ জে এ/ মোহন

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech