আসন বণ্টন নিয়ে আ’লীগের সাথে শরিকদের অসন্তোষ

  


পিএনএস ডেস্ক: আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আসন ভাগাভাগি নিয়ে আওয়ামী লীগের সাথে মহাজোট শরিকদের দ্ব›দ্ব প্রকাশ্য হয়ে উঠেছে। গতকাল সকালে আনুষ্ঠানিকভাবে শরিকদের মধ্যে আসন বণ্টনের পর থেকেই মতাসীন এ জোটে অসন্তোষ দেখা দেয়। তারই বহিঃপ্রকাশ হিসেবে আজ আনুষ্ঠানিকভাবে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে নিজেদের অবস্থান তুলে ধরবে মহাজোটে যোগ দেয়া ডা: বদরুদ্দোজা চৌধুরীর নেতৃত্বাধীন যুক্তফ্রন্ট। কাক্সিক্ষত আসনের সুরাহা না হলে মতাসীন জোট থেকে বের হয়ে যাওয়ারও ঘোষণা আসতে পারে বলে একাধিক সূত্র আভাস দিয়েছে।

গতকাল সকালে শরিকদের মধ্যে আসন বণ্টন করে নৌকা প্রতীকের চিঠি হস্তান্তর করেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। এর মধ্যে ওয়ার্কার্স পার্টিকে ৫টি, জাসদকে (ইনু) ৩টি, তরীকত ফেডারেশনকে ২টি, জাসদকে (আম্বিয়া) ১টি এবং যুক্তফ্রন্টকে ৩টিসহ মোট ১৬টি আসন দেয়া হয়। এ ছাড়া জাতীয় পার্টির জন্য ৪০ থেকে ৪২টি আসন রাখা হয়েছে বলে জানান ওবায়দুল কাদের।

জানা গেছে, মতাসীন জোটের বিভিন্ন দল আসনের এমন ভাগাভাগি নিয়ে সন্তুষ্ট হতে পারেনি। বিশেষ করে জাতীয় পার্টি, যুক্তফ্রন্ট ও জাসদ (আম্বিয়া) আওয়ামী লীগের আসন ভাগাভাগি মেনে নিতে পারছে না। কাক্সিক্ষত আসন না পাওয়ায় নিজস্ব দল ও জোটের মধ্যে চাপের মুখে পড়েছেন তারা। একাধিক সূত্র জানায়, গতকাল আসন বণ্টনের পরপরই ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের সাথে কথা বলতে চেয়েছিলেন যুক্তফ্রন্ট নেতা ও বিকল্পধারার মহাসচিব মেজর আব্দুল মান্নান। তবে ওবায়দুল কাদের তাকে কথা বলা থামিয়ে দেন। এ অবস্থায় মেজর মান্নান পরে কথা বলবেন বলে জানান।

যুক্তফ্রন্টের একধিক নেতার সাথে কথা বলে জানা যায়, আওয়ামী লীগ থেকে দেয়া মাত্র তিনটি আসন মেনে নিতে পারছেন না তারা। যেখানে যুক্তফ্রন্টে প্রায় অর্ধশতাধিক রাজৈনতিক দল রয়েছে সেখানে মাত্র তিনটি আসন দিয়ে তাদের অপমান করা হয়েছে। এ অবস্থায় সরকারের সাথে থাকা না থাকার বিষয়টা পুনরায় ভাবছেন তারা।

মহাজোটের মনোনয়ন নিয়ে যুক্তফ্রন্টের প্রধান সমন্বয়ক গোলাম সারোয়ার মিলন গত রাতে এক বিবৃতিতে প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে বলেছেন, মহাজোটের আসন বণ্টনে যুক্তফন্টের প্রার্থীর সংখ্যা নিয়ে আমরা সন্তুষ্ট নই। তিনি বলেন, মহাজোটে আমাদের যোগ্য এবং বিজয়ের সম্ভাবনাময় অনেক প্রার্থী থাকা সত্তে¡ও মাত্র তিনজন প্রার্থীকে মহাজোটের মনোনয়ন দেয়ার বিষয়টি দেখতে পেয়ে যুক্তফ্রন্টের নেতাকর্মীরা হতাশ ও ােভ প্রকাশ করেছেন।

উপরোক্ত বিষয়ে বিকল্পধারা বাংলাদেশের প্রেসিডেন্ট এবং যুক্তফ্রন্টের চেয়ারম্যান অধ্যাপক এ কিউ এম বদরুদ্দোজা চৌধুরীর সাথে মহাজোট নেত্রী ও আওয়ামী লীগের সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেয়ার কথা ছিল। কিন্তু পরিতাপের বিষয় সেই প্রত্যাশিত আলোচনা এখনো অনুষ্ঠিত হয়নি।
এ বিষয়ে আজ শনিবার বি. চৌধুরীর বারিধারার বাসভবনে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে বিকল্পধারার মহাসচিব মেজর (অব:) আবদুল মান্নান এবং যুক্তফ্রন্টের মুখপাত্র মাহী বি. চৌধুরী বক্তব্য উপস্থাপন করবেন।

এ দিকে আসন বণ্টন নিয়ে সরকারের বড় শরিক জাতীয় পার্টির সাথে তীব্র দ্ব›দ্ব বিরাজ করছে। দলটির কো-চেয়ারম্যান জি এম কাদের এক প্রতিক্রিয়ায় বলেছেন, আমরা আশা করেছিলাম কমপে ৫০ থেকে ৫৫টি আসন দেয়া হবে। কিন্তু আমরা তা পাইনি। সূত্র: নয়া দিগন্ত

পিএনএস/আনোয়ার

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech