শ্রমিকের বহুমুখী কল্যাণে সরকার সম্পূর্ণ ব্যর্থ: বিএনপি

  

পিএনএস ডেস্ক : দেশে প্রাতিষ্ঠানিক ও অপ্রাতিষ্ঠানিক কোটি শ্রমিকের বহুমুখী কল্যাণে এই অনির্বাচিত সরকার সম্পূর্ণ ব্যর্থ হয়েছে বলে মনে করে বিএনপি।

শনিবার (১ মে) বিকালে বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির ভার্চুয়াল সভায় এ বিষয়ে আলোচনা হয়।

আলোচনা সভার সভাপতিত্ব করেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান। সভায় উপস্থিত ছিলেন জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন সরকার, মির্জা আব্বাস, বাবু গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, ড. আব্দুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান, মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, বেগম সেলিমা রহমান, ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু।

সভা মনে করে শ্রমিকদের ন্যায্য মজুরি নিশ্চিত করা, শ্রমিকদের অন্ন, বস্ত্র, বাসস্থানের নিশ্চিয়তা প্রদান, শ্রমিকদের স্বাস্থ্য সেবা, তাদের সন্তানদের উপযুক্ত শিক্ষা নিশ্চিত করতে পারেনি সরকার। বিশেষ করে করোনাভাইরাসের সংক্রমণের ফলে লকডাউনে চাকরি চ্যুতি, বেতন না পাওয়া, শ্রমিকদের মানবেতর জীবনের দিকে ঠেলে দিয়েছে। অবিলম্বে সকল ধরনের শ্রমিকদের মজুরি নির্ধারণ, কর্মের নিশ্চয়তা প্রদান এবং লকডাউনে কর্মচ্যুত শ্রমিকদের ক্ষতি পূরণ, খাদ্য সহায়তা নিশ্চিত করতে হবে। বিএনপি’র প্রস্তাবিত প্রণোদনা অনুযায়ী প্রতিষ্ঠানিক ও অপ্রাতিষ্ঠানিক শ্রমিকদের কর্মপক্ষে তিন মাসের জন্য ১৫ হাজার টাকা হারে এককালীন অনুদান প্রদান করার আহ্বান জানানো হয়।

চট্টগ্রামের বাঁশখালীতে পুলিশ কতৃক ৫ জনকে হত্যা, ২০০ এর অধিক শ্রমিককে গুলির নিন্দা জানিয়ে নিহত শ্রমিকদের পরিবারকে যথাযথ ক্ষতিপূরণ ও আটক শ্রমিকদের মুক্তির আহ্বান জানানো হয়। সকল প্রকার শ্রমিক নির্যাতন ও বৈষম্য বন্ধ করতে হবে বলে সভা দাবি করে।

সভায় সম্প্রতি ভারত কর্তৃক একতরফাভাবে অক্সিজেন রফতানি বন্ধের ঘোষণায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করা হয়। বিশেষ করে করোনা রোগীর চিকিৎসার জন্য অত্যন্ত জরুরি অক্সিজেন রফতানি বন্ধের সিদ্ধান্ত কোন মতেই বন্ধুসুলভ আচরণ হতে পারে না। ইতিপূর্বেও বাংলাদেশের জরুরি প্রয়োজনের সময় বিভিন্ন জরুরি পণ্যের রফতানি একতরফা ভাবে বন্ধ করায় বাংলাদেশের চরম বিপদাপন্ন হয় বলে সভা মনে করে। সভায় শুধুমাত্র ভারতের ওপর নির্ভর না করে বিকল্প উৎস থেকে অক্সিজেনসহ নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্য আমদানির ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানানো হয় এবং দেশে অক্সিজেন উৎপাদনের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানানো হয়।

পিএনএস/এসআইআর



 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন