টাক পুরুষরা বেশি আকর্ষণীয়: গবেষণা

  

পিএনএস ডেস্ক : চুল পড়ে গিয়ে মাথা টাক হয়ে গেলে পুরুষরা বেশ বিচলিত হয়ে পড়েন। তারা মনে করেন যে চুল না থাকায় তাদের হয়েতোবা আর আকর্ষনীয় লাগবেনা। তবে গবেষণা বলছে অন্য কথা। সম্প্রতি এক গবেষণায় দেখা গেছে যে, টাক মাথার পুরুষেরা বেশি আকর্ষণীয় ও পুরুষালী হয়ে থাকে।

একজন পুরুষ রাতারাতি টাক হয়ে যান না। এটা দীর্ঘকালীন একটি প্রক্রিয়া। সারাধনত ৩৫ বছর বয়সের মধ্যে পুরুষরা তাদের ৬৬ শতাংশ চুল হারায়। আর ৫৫ বছরের মধ্যে ৯০ শতাংশ পুরুষই তাদের প্রায় সব চুল হারিয়ে ফেলেন।

পুরুষের টাক হওয়ার ব্যাপারটা অনেকটা পারিবারিক টাকের ইতিহাসের ওপর নির্ভর করে। কোন পুরুষের বাবা-দাদাদের টাক থেকে থাকলে তারও টাক হওয়ার বড় সম্ভাবনা থাকে। টাক হওয়ার ক্ষেত্রে সাধারনত এন্ড্রোজেন রিসেপটর জিন ভূমিকা রেখে থাকে।

টাক সমস্যা বহু বছর ধরেই পুরুষদের আত্মবিশ্বাস নষ্টের ও দুশ্চিন্তার বড় একটি কারণ। এ সমস্যা সমাধানে অনেক লোককে প্রচুর অর্থ খরচ করতেও দেখা যায়। তবে গবেষকেরা জানিয়েছেন টাক নিয়ে দুশ্চিন্তা আর নয়। কারণ এই টাকই আপনাকে এনে দিতে পারে সফলতার মুকুট।

এ বিষয়ে ফ্লোরিডার ব্যারি বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষক ড. ফ্র্যাঙ্ক মাস্কেরেলা এক গবেষণা চলিয়ে অভূতপূর্ব ফল পেয়েছেন। তিনি সম্প্রতি পুরুষদের নিয়ে একটি গবেষণা চালান। গবেষণায় অংশগ্রহণকারী পুরুষদের মধ্যে তিনি চারটি বৈশিষ্টের খোঁজ করেন। বৈশিষ্ট্যগুলো হলো - শারীরিক ভাবে আকর্ষণীয়, আগ্রাসী মনোভাব, সন্তুষ্ট পুরুষ এবং সামাজিক ভাবে পরিপক্ক ও সৎ।

গবেষণায় অংশগ্রহণকারীদের দু’টি দল ছিলো। এক দলের সদস্যদের মাথা ভর্তি চুল ছিলো। আরেকটি দলের সদস্যদের মাথায় কোনো চুল ছিলো না।

গবেষণার ফলে দেখা যায় যে, টাক মাথার লোকদের দলটির সদস্যরা মাথায় চুলভর্তি লোকদের দলের সদস্যদের চেয়ে বেশি আকর্ষণীয়, সৎ ও বুদ্ধিমান।

ফলে এটা আর বিস্ময় নয় যে কেনো জেফ বেজোসের মতো ব্যাবসায়ী, জেসন স্ট্যাথাম, ব্রুস উইলিস ও ডোয়াইন জনসনের মতো তারকারা কেন এতো সফল।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech