অবাক কাণ্ড, চুরি করে ঢুকে যেতেন স্যুটকেসে!

  

পিএনএস ডেস্ক : ফ্রান্সের উত্তরাঞ্চলের শহর ব্যুভে। প্যারিস থেকে সেখানে যাত্রীবাহী বাস চলে। সম্প্রতি বাসের যাত্রীদের ব্যাগ থেকে জিনিসপত্র চুরি যাওয়ার ঘটনা ঘটছিল। কর্তৃপক্ষ বুঝতেই পারছিল না, কীভাবে চুরি হচ্ছে। শেষে বাসের এক স্যুটকেসের ভেতরে পাওয়া যায় চোরকে!

ব্যুভে থেকে প্যারিস যেতে সোয়া ঘণ্টা সময় লাগে। ব্যুভে বিমানবন্দর থেকে যাত্রী ও তাদের বাক্স-পেটরা নিয়ে বাস যায় প্যারিস বিমানবন্দরে। গত কিছুদিন ধরেই এ পথে চুরির অভিযোগ আসছিল। কিন্তু চোরকে পাওয়া যাচ্ছিল না। এমনকি চুরির কোনো সূত্রও পাওয়া যাচ্ছিল না। শেষে বাসের এক চালক গত সপ্তাহে চোরকে খুঁজে বের করেন।

ওই চালক লক্ষ করেন, একটি বাদামি রঙের ব্যাগ স্বয়ংক্রিয়ভাবে চলছে। তা দেখেই পুলিশকে খবর দেন তিনি। পুলিশ এসেই পর্যবেক্ষণ করতে থাকে ওই ব্যাগের দিকে। হঠাৎ করেই দেখা যায়, রোমানিয়ার এক নাগরিক সেই ব্যাগ নিতে এসেছেন। তৎক্ষণাৎ সেই ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করা হয়। এরপরই জানা যায় চুরির গল্প।

গোয়েন্দারা ওই ব্যাগ খুলে চোরকে দেখতে পান। চোর ওই ব্যাগে ঢুকে পড়তেন। বাস চলা শুরু করলে বেরিয়ে আসতেন ব্যাগ থেকে। ব্যাগ রাখার নির্ধারিত স্থানে তিনি অন্য যাত্রীদের ব্যাগ থেকে মূল্যবান জিনিসপত্র চুরি করতেন। এরপর সেগুলো ভরে রাখতেন কালো রঙের অন্য একটি ব্যাগে। চুরি শেষ হলে আবার ঢুকে পড়তেন বাদামি রঙের স্যুটকেসে। প্যারিসে পৌঁছানোর পর বাদামি রঙের স্যুটকেস ও কালো রঙের ব্যাগটি নিতে আসতেন চোরের সহযোগী। এভাবেই শেষ হতো চুরির পুরো প্রক্রিয়া।

পুলিশের একটি সূত্র এএফপিকে জানিয়েছে, উদ্ধারকৃত কালো রঙের ব্যাগে দুটি ল্যাপটপ, অর্থ ও নানা ধরনের মূল্যবান জিনিস পাওয়া গেছে।

গ্রেপ্তার করা দুই ব্যক্তিরই বয়স চল্লিশের কোটায় এবং তাঁরা রোমানিয়ার নাগরিক। পুলিশ জানতে পেরেছে, আগেও এই দুই ব্যক্তি চুরি করতেন এবং সংশ্লিষ্ট থানায় এর রেকর্ডও আছে।

এরই মধ্যে চুরির সাজাও পেয়ে গেছেন চোর। স্যুটকেসে থাকা চোরকে ৮ মাসের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। আর তাঁর সহযোগীকে দেওয়া হয়েছে এক বছরের কারাদণ্ড।

পিএনএস/জে এ /মোহন

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech