ক্রাইস্টচার্চ হামলার জেরে সিনেটরের মাথায় ডিম ভাঙলেন তরুণ (ভিডিও)

  

পিএনএস ডেস্ক: নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে দুটি মসজিদে প্রাণঘাতি হামলার দায় মুসলিম অভিবাসীদের ওপর চাপিয়ে তোপের মুখে পড়েছেন অস্ট্রেলিয়ার সিনেটর ফ্রেজার অ্যানিংয়ে। এমন মন্তব্যের পর তার মাথায় ডিম ভেঙে প্রতিবাদ জানিয়েছেন এক তরুণ।

ক্রাইস্টচার্চ হামলার একদিন পরই শনিবার (১৬ মার্চ) মেলবোর্নে এক সংবাদ সম্মেলনে আসেন অ্যানিং।

সংবাদ সম্মেলন চলাকালে ঠিক তার পেছনে দাঁড়িয়ে এক তরুণ মোবাইলে ভিডিও করার সময় অ্যানিংয়ের মাথায় ডিম ভেঙে দেন। এসময় উঠে দাঁড়িয়ে ওই তরুণের নাকেমুখে চড় কষিয়ে দেন অ্যানিং। দুজনের মধ্যে চলে হাতাহাতি। পরে উপস্থিত সাংবাদিকরা তাদের সরিয়ে নেন।

গতকাল হামলার পরপরই সংবাদমাধ্যমে দেয়া এক বিবৃতিতে অ্যানিং বলেছিলেন, এ হামলা অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডে মুলসলমান অভিবাসীদের সংখ্যা বৃদ্ধির কারণে বাড়তে থাকা আতঙ্কেরই ইঙ্গিত দিচ্ছে।

অ্যানিং তার বিবৃতিতে কুইন্সল্যান্ডের সিনেটর অ্যানিং মসজিদে হত্যাযজ্ঞের জন্য নিউজিল্যান্ডের অভিবাসন নীতিকেও দায়ী করেন।

তিনি বলেন, ‘মুসলিম অভিবাসীরা অস্ট্রেলিয়া এবং নিউজিল্যান্ডবাসীর মধ্যে এক ধরনের ‘ভয়’ সৃষ্টি করছে। যে কারণেই আজকের এ হামলা। ক্রাইস্টচার্চে হামলায় দেশের জাতীয়তাবাদকে দায়ী করা যাবে না। কিন্তু নিউজিল্যান্ডের অভিবাসী পদ্ধতি এ হামলার দায় এড়াতে পারবে না।’

সিনেটর বিশ্বে বিগত হামলার কথা উল্লেখ করে স্পষ্ট বলেন, ‘এখন মুসলিমদের ওপর হামলা হয়েছে। এছাড়া মুসলমানরাইতো সব সময় হামলা করেন।’

এর আগে গতকাল শুক্রবার জুমার নামাজের সময় ক্রাইস্টচার্চের দুটি মসজিদে বন্দুকধারীর হামলায় ৪৯ জন নিহত ও ৪৮ জন আহত হন।

হামলাকারীর নাম ব্রেন্টন ট্যারেন্ট। তিনি অস্ট্রেলিয়ার নাগরিক। যাকে গ্রেফতারের পর শনিবার আদালতে তোলা হয়েছে।

অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন হামলাকারীকে ‘একজন উগ্র ডানপন্থি নৃশংস সন্ত্রাসী’ বলে উল্লেখ করেছেন।

পিএনএস/হাফিজুল ইসলাম

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech