এবার অস্ট্রেলিয়ায় মসজিদে গাড়ি হামলা

  

পিএনএস ডেস্ক: নিউজিল্যান্ডের দুই মসজিদে মুসল্লিদের ওপর বন্দুর হামলার রেশ কাটতে না কাটতেই এবার অস্ট্রেলিয়ার কুইন্সল্যান্ড প্রদেশের একটি মসজিদে গাড়ি হামলা চালিয়েছে এক তরুণ। হামলাকারী লোগান সিটির ব্রাউন প্লেইনসের বাসিন্দা। তবে এতে হতাহতের কোনও খবর পাওয়া যায়নি।

শনিবার (১৫ মার্চ) মুসল্লিদের নামাজরত অবস্থায় ওই হামলাকারী গাড়ি নিয়ে মসজিদের দরজায় আঘাত হানেন। এ সময় হামলাকরী মুসলিমদের উদ্দেশ্যে আক্রমণাত্মক ভাষায় গালি-গালাজ করে।

প্রদেশটির পুলিশ এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, নেভিলে স্ট্রিটের পাশে গাড়ি চালানোর পর বায়তুল মাসরুর মসজিদের প্রবেশপথে গাড়ি চালিয়ে দেন ওই হামলাকারী। রাতেই তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এ হামলায় মসজিদের সামনের দরজায় ও প্রবেশপথ সামান্য ক্ষতিগ্রস্ত হয়।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়, মসজিদের মুসল্লিদের উদ্দেশ্যে গালি-গালাজ করেন অভিযুক্ত তরুণ। এরপর তিনি বাসায় ফিরে যান, বাসা থেকেতাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

শনিবার বিকেলের দিকে ২৩ বছর বয়সী ওই হামলাকারী তরুণের ড্রাগ টেস্ট করা হয়। টেস্টে হামলাকারীর শরীরে মাদকের উপস্থিতি পাওয়া যায়।

পরে তার গাড়ি চালানোর লাইসেন্স ২৪ ঘণ্টার জন্য স্থগিত করা হয়। মাদকাসক্ত অবস্থায় গাড়ি চালানোর দায়ে তাকে আদালতে হাজিরের নির্দেশও দেয়া হয়েছিল। পুলিশি জিম্মা থেকে মুক্তি পাওয়ার পর ওই তরুণ গাড়িতে ফিরে যান।

ইচ্ছাকৃতভাবে সম্পদ ধ্বংস, জন-অশান্তি সৃষ্টি ও লাইসেন্সের স্থগিত উপেক্ষা করে গাড়ি চালানোর অভিযোগ আনা হয়েছে হামলাকারীর বিরুদ্ধে।

প্রসঙ্গত, শুক্রবার (১৫ মার্চ) দুপুর ১টা ৪০ মিনিটে জুমার নামাজের সময় মসজিদে হামলা চালায় মুসলিম বিদ্বেষী অস্ট্রেলিয়ান এক নাগরিক। প্রথমে আল নূর মসজিদে হামলা চালায় সে। পরে পার্শ্ববতী লিনউড মসজিদ হামলা চালায়। নৃশংস ওই হত্যাকাণ্ডের পুরো ঘটনা ফেসবুক লাইভে প্রচার করে হামলাকারী। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত ৫০ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech