‘বিএসএফ কর্তা বললেন; আমরা বাংলাদেশি বা পাকিস্তানি নই’

  


পিএনএস ডেস্ক: ভারতের পাঞ্জাবে কর্মরত এক বিএসএফের সাব-ইন্সপেক্টর বলেছেন, ‘আমরা বাংলাদেশি বা পাকিস্তানি নই। আমরা ভারতীয়, আসামেই আমাদের জন্ম।’ সম্প্রতি আসাম সরকার স্ত্রীসহ এই বিএসএফ কর্তাকে বিদেশি বলে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করলে তিনি আদালতের দ্বারস্থ হন এবং গণমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে এ মন্তব্য করেন।

জানা গেছে, ভারতের সাবেক সেনা অফিসারের পর এবার আসামের নাগরিকত্ব হারালো মুজিবুর রহমান নামের এই বিএসএফ'র সাব-ইন্সপেক্টর ও তার স্ত্রী। আসামের জোড়হাটের উদয়পুর-মিকিরপাট্টির বাসিন্দা মুজিবুর ও তার স্ত্রীকে গত বছর ডিসেম্বরে প্রকাশিত এনআরসি তালিকায় বিদেশি ঘোষণা করা হয়।

পাঞ্জাবে কর্মরত মুজিবুর রহমান গত সপ্তাহে কর্মক্ষেত্র ছুটিতে আসামে ফিরে এই বিষয়টি জানতে পারেন। রহমান জানিয়েছেন যে, তার এবং তার স্ত্রীর ভারতীয় নাগরিকত্ব নিয়ে কোনও সন্দেহের অবকাশ নেই। তিনি বলেন, আমরা বাংলাদেশি বা পাকিস্তানি নই। আমরা ভারতীয়, আসামেই জন্ম। ১৯২৩-এ আমাদের জমির রেকর্ড আছে। কিন্তু বর্ডার পুলিশ আমাদের নাগরিকত্ব নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছে। এই বিষয়ে আসামের গুয়াহাটি হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছেন মুজিবুর রহমান। এতদিন নিজের নাগরিকত্ব নিয়ে চ্যালেঞ্জ করে আদালতে না যাওয়ায় তাদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারির নির্দেশ জারি করেছে জোড়হাট ট্রাইব্যুনাল। সূত্র : এই সময়।

পিএনএস/আনোয়ার

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech