ঝালকাঠিতে বিএনপির ৫৯ নেতাকর্মীর নামে চার্জ গঠনের শুনানি ২১ সেপ্টেম্বর

  

পিএনএস, ঝালকাঠি প্রতিনিধি : গাড়ি পোড়ানোর অভিযোগে পুলিশের দায়ের করা বিশেষ ক্ষমতা আইনের মামলায় ঝালকাঠি জেলা বিএনপির সহসভাপতি মিঞা আহমেদ কিবরিয়া ও জেলা যুবদলের সভাপতি এম কামরুল ইসলামসহ ৫৯ নেতাকর্মীর নামে চার্জ গঠনের শুনানি অনুষ্ঠিত হয়েছে।

রবিবার বেলা ১২টায় ঝালকাঠির জেলা ও দায়রা জজ আদালতে বিএনপি নেতাকর্মীরা হাজির হলে চার্জ গঠনের ওপর শুনানি শুরু হয়। শুনানিতে রাষ্টপক্ষে অংশ নেন সরকারি কৌঁসুলি আবদুল মান্নান রসুল ও আসামী পক্ষে অ্যাডভোকেট হুমায়ুন কবির বাবুল। শুনানি শেষে বিচারক মো. ইখতিয়ারুল ইসলাম মল্লিক আগামী ২১ সেপ্টেম্বর আদেশের দিন ধার্য করেন। এই দিন আসামীদের বিরুদ্ধে চার্জ গঠন হতে পারে বলে আদালতের সরকারি কৌঁসুলি আবদুল মান্নান রসুল জানিয়েছেন।

আসামী পক্ষের আইনজীবী হুমায়ুন কবির বাবুল জানান, ২০১৫ সালের ২১ জানুয়ারি সকালে বরিশাল-পটুয়াখালী আঞ্চলিক মহাসড়কের ঝালকাঠির নলছিটি উপজেলার দপদপিয়া চৌ-মাথা এলাকায় যাত্রীবাহী বাস আবদুল্লাহ পরিবহনে পেট্রোল দিয়ে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়। এ ঘটনায় ওইদিন নলছিটি থানার উপ-পরিদর্শক মো. কামরুজ্জামান বাদী হয়ে ৪৯ জনকে আসামী করে বিশেষ ক্ষমতা আইনে একটি মামলা করেন। তদন্ত শেষে পুলিশ ২০১৫ সালের ১৫ ফেব্রুয়ারি ৫৯ জনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করে।

বর্তমানে এ মামলার আসামী বিএনপি নেতাকর্মীরা জামিনে রয়েছেন। ঝালকাঠি- আসনে বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশী মিঞা আহমেদ কিবরিয়া এ মামলায় ২০১৫ সালের ২০ আগস্ট আদালতে হাজির হলে বিচারক তাকে জেল হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন। ১৬ দিন জেল হাজতে থাকার পরে ৬ সেপ্টেম্বর তিনি জামিনে মুক্ত হন।

এদিকে জেলা বিএনপির সহসভাপতি মিঞা আহমেদ কিবরিয়াকে গাড়ি বহর করে বরিশাল থেকে নিয়ে আদালত চত্বরে নিয়ে আসেন স্থানীয় নেতাকর্মীরা। সকালে জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মনিরুল ইসলাম নুপুর, সাংগঠনিক সম্পাদক মেহেদী হাসান খান বাপ্পি, পৌর বিএনপির সভাপতি অনাদী দাস ও সাধারণ সম্পাদক আনিচুর রহমান তাপুর নেতৃত্বে বিএনপি নেতাকর্মীরা কালিজিরা সেতু এলাকায় গাড়ির বহর নিয়ে মিঞা আহমেদ কিবরিয়াকে স্বাগত জানান।

এসময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জেলা বিএনপির সহসভাপতি বজলুর রশিদ লিয়াকত, সদর থানা বিএনপির সাধারণ সম্পপাদক রেজাউল করিম আজিম, বিএনপি নেতা নাসির তালুকদার, কিবরিয়া তালুকদার, যুবদলনেতা রবিউল হোসেন তুহিন, জেলা শ্রমিক দল সভাপতি টিপু সুলতান, জেলা সেচ্ছাসেবক দলের আহ্বায়ক দ্বীন ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম লিটন, ছাত্রদল নেতা জাহিদুল ইসলাম, ইয়াসিন আরাফাত মিঠু ও গিয়াস উদ্দিনসহ সদর উপজেলার দশ ইউনিয়ন ও শহরের নয়টি ওয়ার্ডের বিএনপির সভাপতি ও সস্পাদকবৃন্দ।

পিএনএস/মোঃ শ্যামল ইসলাম রাসেল

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech