লকডাউনে অদ্ভুত কাণ্ড করে বিশ্বরেকর্ড গড়লেন মার্কিন নাগরিক

  

পিএনএস ডেস্ক: করোনাভাইরাসের প্রকোপ কমাতে সারা বিশ্বের বহু দেশে এখন লকডাউন চলছে। ফলে ঘরবন্দি বিশ্বের অধিকাংশ মানুষ। বাড়ি থেকে বের হওয়ার উপায় নেই। বহু মানুষ বাড়ি থেকেই অফিসের কাজ করছেন। কারও আবার কাজকর্ম আপাতত বন্ধ। এতটা খালি সময় এর আগে হয়তো পায়নি বিশ্বের মানুষ।

তাই সারাদিন বাড়িতে বসে সময় নষ্ট করছেন না অনেকে। কেউ রান্না করছেন। কেউ ছবি আঁকছেন। কেউ আবার অন্য কোনও সৃষ্টিশীল কাজ করে চলেছেন। গানবাজনা বা নাচ করেও অনেকে নিজেদের প্রতিভা প্রকাশ করছেন। সোশ্যাল মিডিয়ার যুগে ঘরবন্দি থেকেও নিজের প্রতিভার কথা দুনিয়ার সামনে তুলে ধরাটা সহজ হয়েছে। ফলে বাড়িতে বসেও অনেকেই বাজিমাৎ করছেন।

যুক্তরাষ্ট্রের গ্রেগ বিটস্টক লকডাউনের এই সময়টাকে পুরোপুরি কাজে লাগিয়ে বিশ্বরেকর্ড গড়েছেন। পানির নিচে ৫০ কিলো ওজনের লোহার চাকতি তুলে ৬২টি বেঞ্চ প্রেস দিয়েছেন তিনি। যুক্তরাষ্ট্রের ইলিনোডসের সেন্ট চার্লস লেকের জলের নিচে গিয়ে তিনি এমন কাণ্ড করেছেন।
পানির নিচে ৬২টি বেঞ্চ প্রেস দেওয়ার সময় তিনি শ্বাসপ্রশ্বাস আটকে রেখেছিলেন। তার এমন কাণ্ডের ভিডিও গিনেস বুক অফ ওয়ার্ল্ড রেকর্ড কর্তৃপক্ষ নিজেদের ফেসবুক পেজে শেয়ার করেছে। এরই মধ্যে ছয় লাখ মানুষ সেই ভিডিও দেখে ফেলেছেন। গ্রেগের এমন কাজ একইসঙ্গে মজাদারও ছিল আবার ভয়ানকও। কারণ অনেকেই বলছেন, এটা শেষ করতে গিয়ে গ্রেগের জীবন সংশয় হতে পারত।

গ্রেগ অবশ্য এমন কাজ আগেও করেছেন। গত বছর তিনি পানির নিচে ৫০ কেজি ওজনের লোহার চাকতি নিয়ে ৪২টি বেঞ্চ প্রেস দিয়েছিলেন। এবার নিজের সেই রেকর্ড ভেঙে বিশ্বরেকর্ড গড়লেন তিনি। কেমন ছিল টাস্ক পূরণ করার অভিজ্ঞতা। গ্রেগ জানান, পানির নিচে করতে গিয়ে ভয় লাগছিল। কিন্তু টাস্ক শেষ করব বলে মনে মনে ঠিক করেছিলাম। বিশ্বরেকর্ড হওয়ার পর দারুণ লাগছে।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন