২০৪০ সালের মধ্যে উন্নত দেশে পরিনত হবে বাংলাদেশ

  

পিএনএস : বাংলাদেশ সরকারের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রাণালয়ের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী আসাদোজ্জামান খাঁন কামাল বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যতদিন থাকবেন ততদিন বাংলাদেশকে এগিয়ে যাবে। আর আগমী ২০৪০ সালের মধ্যে উন্নত দেশে পরিনত হবে বাংলাদেশ। তিনি ১৩ জানুয়ারী শনিবার নরসিংদীর শিবপুর উপজেলার লাখপুর উচ্চ বিদ্যালয় শত বছর পূর্তি অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী আরো বলেন, বাংলাদেশ অসাম্প্রতিকতার দেশ। এ দেশের মানুষ ধর্মভীরু ধর্মঅন্ধ নয়। সারা বিশ্বে যখন জঙ্গিবাদ মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে আমরা তা নির্মুলে সক্ষম হয়েছি। সন্ত্রাস জঙ্গিবাদের কোন জায়গা হবে না আমাদের এই দেশে।

স্বারাষ্ট্র মন্ত্রী বলেন, আজকে আমরা সবজি উৎপাদনে বিশ্বে চতুর্থ আর নরসিংদীর সবজী দেশে সুনাম কেড়েছে। আমাদের দেশে বৈদশিক বিনিয়োগ বাড়ছে, সেইসাথে খাদ্যে স্বয়ং সম্পূর্ন । বাংলাদেশের চাহিদা পূরন করে বিদেশেও আমরা খাদ্য রপ্তানি করছি।

তিনি মিয়ানমার প্রসঙ্গে বলেন, মিয়ানমারে যখন অরাজকতা দাঙ্গা হামলা চলছে নির্বিচারে মানুষ মারা হচ্ছিলো। বঙ্গাপসাগরে অনেক মানুষের লাশ ভেসে উঠেছে। সেই সময় বাংলাদেশ সীমান্তের দ্বার খুলে দেওয়া হয়েছিলো। ১০ লক্ষ মানুষ এ দেশে আশ্রয় নিয়েছে। সেই আশ্রয় নেয়া মানুষকে যখন প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা দেখতে কুতুব আলম ক্যাম্পে গেলেন। বৃদ্ধাকে জড়িয়ে ধরলেন শিশু বাচ্চাটাকে কোলে নিলেন। এই দৃশ্য দেখে বিশ্ব দরবারে তাকে মাদার অব হিউম্যানিটি উপাধি দেওয়া হলো।

তিনি বলেন, আমরা ক্ষমতায় থাকা কালীন ৪৫০০ মেগা ওয়াট বিদ্যুৎ রেখে গেছি। দল পালা বদলের পরে যখন ক্ষমতায় এসেছি তখন ৩২০০ মেগা ওয়াট বিদ্যুৎ পেয়েছি। মানে ১৩০০ মেগা ওয়াট বিদ্যুতের ঘাটতি। কোথায় গেলো বিদ্যুৎ। এই হলো দেশের অবস্থা। ঘুরে দাড়িয়েছে বাংলাদেশ। দারিদ্রের হার কমেছে। দেশকে নিয়ে ষড়যন্ত্রের গোড়া পতন হয়েছে। আজকে বাংলাদেশকে আলোকিত ও পরবর্তীতে বাংলাদেশকে উন্নত দেশ হিসেবে দেখতে চান? তাহলে সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে হবে। আর তা নিতে হবে নির্বাচনের মাধ্যমে। হৃদয়ে বাংলাদেশের যে স্বপ্ন দেখেন আপনারা নির্বাচনে আওয়ামীলীগ সরকারকে টিকিয়ে রেখে বাস্তবে তার প্রতিফলন নিশ্চিত করার আহ্বান জানান।

স্কুলের শত বছর পূর্তি উপলক্ষে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী বলেন ১৮১৭ সালে দুই গ্রামের মানুষ মিলে এ স্কুল প্রতিষ্ঠিত করেছে। এ অঞ্চলের মানুষদেরকে শিক্ষিত করার লক্ষে। আজকে ২ গ্রামের মানুষ আর স্কুল দুটোই সামান ভাবে এগিয়ে গেছে। এ স্কুলের শিক্ষার্থীরা আজকে অনেক বড় বড় জায়গায় অধিষ্ঠিত হয়েছে।

লাখপুর শিমুলিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের সভাপতি মহসিন নাজিরের সভাপতিত্বে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি মাবুবুর রহমান ভূইয়া, স্থানীয় সাংসদ আলহাজ¦ সিরাজুল ইসলাম মোল্লা, উপজেলা চেয়ারম্যান আরিফুল ইসলাম মৃধা, নরসিংদী পুলিশ সুপার আমেনা বেগম ও শিবপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শিলু রায় প্রমূখ।

পিএনএস/মোঃ শ্যামল ইসলাম রাসেল

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech