মিরপুরের বাড়িতে গুপ্তধনের সন্ধানদাতা সেই তৈয়ব এখন ‘গায়েব’! - জাতীয় - Premier News Syndicate Limited (PNS)

মিরপুরের বাড়িতে গুপ্তধনের সন্ধানদাতা সেই তৈয়ব এখন ‘গায়েব’!

  

পিএনএস ডেস্ক : রাজধানীর মিরপুরে একটি বাড়িতে গুপ্তধন আছে এমন তথ্য দিয়ে থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করা প্রথম ব্যক্তি তৈয়বকেই এখন খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। থানায় জিডি করার পর থেকেই তিনি ‘নিখোঁজ’ রয়েছেন। তার মোবাইল নম্বরটিও বন্ধ রয়েছে।

রবিবার (২২ জুলাই) কয়েকবার চেষ্টার পরও তার নম্বরটি বন্ধ পাওয়া গেছে। তার আসল বাড়ি কোথায় সে সম্পর্কেও কিছুই জানে না পুলিশ। চলমান অভিযানের সময়ে সেই তৈয়বকে ঘটনাস্থলে দেখা যায়নি। এদিকে, গুপ্তধন উদ্ধার অভিযান আপাতত স্থগিত করা হয়েছে। বিশেষজ্ঞদের দ্বারা পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে নিশ্চিত হওয়ার পর আবারও উদ্ধার অভিযান শুরু করা হবে।

মিরপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দাদন ফকির বলেন, তৈয়ব নামের ওই ব্যক্তির জিডি করেই চলে গেছেন। এরপর আর তাকে পাওয়া যায়নি। তবে জিডির কপিতে দেয়া তার ঠিকানা সঠিক কিনা, সেটা যাচাই করতে টেকনাফ থানা পুলিশকে জানানো হয়েছে।

তৈয়বের বিষয়ে জানতে চাইলে ওই বাড়ির বর্তমান মালিক মনিরুল আলম জানান, তৈয়ব নামের সেই ব্যক্তির সঙ্গে তার কোনো যোগাযোগই হয়নি। তিনি কোথায় আছেন, সে সম্পর্কে তিনি কিছুই জানেন না।

জানা যায়, বাড়িটির আগের মালিক ছিলেন একজন পাকিস্তানী। তার দেয়া তথ্যমতে, সেখানে গুপ্তধন আছে বলে জানতে পারেন বাড়ির বর্তমান মালিক মনিরুল আলম।

বিষয়টি জানিয়ে গত ১৪ জুলাই মনিরুল আলম মিরপুর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। এরই ধারাবাহিকতায় সকালে ঢাকা জেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে সেখানে মাটি খনন শুরু হয়।

মিরপুর বিভাগের উপ পুলিশ কমিশনার জানান, ১৯৭১ সালে যখন স্বাধীনতা আন্দোলন শুরু হয় তখন এই বাড়িটা ছিল জল্লাদখানা। এই বাড়ির মূল যে অধিবাসী ছিলেন তিনি পাকিস্তানে চলে গিয়েছিলেন। পরবর্তীতে তারই এক আত্মীয় এসে কিছুদিন আগে আমাদের কাছে ‘গুপ্তধন’ থাকার তথ্য দেন।

গুপ্তধনের বিষয়ে ওই ব্যক্তি থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। এরপর এই বাড়ির বর্তমান অধিবাসীরাও মিরপুর থানায় একটা জিডি করেন।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech