ঢামেকে ভর্তি সবার শ্বাসনালি পুড়ে গেছে

  

পিএনএস ডেস্ক:ঢাকার দক্ষিণ কেরানীগঞ্জে প্লাস্টিক কারখানায় অগ্নিকাণ্ডে দগ্ধ হয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে ভর্তি হওয়া ৩৪ জনেরই শ্বাসনালী পুড়ে গেছে। চিকিৎসাধীন সবার অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানিয়েছেন ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এ কে এম নাসির।

বুধবার (১১ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় ঢামেকে ভর্তি হওয়া রোগীদের ব্যাপারে গণমাধ্যমকে এ তথ্য জানান তিনি।

দগ্ধরা হলেন—ওমর ফারুক, এহসান, রিয়াজ, জাকির, সোহাগ, মফিজুল, মোস্তাকিম, সালাউদ্দিন, আলম, সজল, লাল মিয়া, মেহেদী, দুর্জয়, সুজন, ফিরোজ, আসলাম, ইমরান, দিদারুল, জিসান, রাজ্জাক, সোহান, ফয়সাল, বাবুল, জাহাঙ্গীর, বশির, খালেদ, শাখাওয়াত, আবু সাঈদ প্রমুখ।

এ কে এম নাসির বলেন, ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটে যে ৩৪ জন ভর্তি আছেন; তাদের সবার অবস্থা আশঙ্কাজনক। এদের শরীরের সর্বনিম্ন ৩০ শতাংশ পুড়ে গেছে। তাদের সবারই শ্বাসনালি পুড়ে গেছে।

বুধবার বিকেলে ঢাকার দক্ষিণ কেরানীগঞ্জের হিজলতলা এলাকায় প্রাইম প্যাক প্লাস্টিক নামের একটি কারখানায় অগ্নিকাণ্ডের এ ঘটনা ঘটে। ঘটনাস্থল থেকে একজনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। কারখানাটিতে প্লাস্টিকের গ্লাস, প্লেট ও খাবারের প্যাকেট তৈরি হতো।

সন্ধ্যার পর ঢামেকে রোগীদের দেখতে গিয়ে বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ জানান, কারখানাটির কোনো অনুমোদন ছিল না। ঢাকা মেডিকেলে রোগী দেখতে আসার আগে তিনি দুর্ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।


পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন