সম্মেলনে নতুন নেতৃত্ব আসবে: প্রধানমন্ত্রী

  

পিএনএস: আওয়ামী লীগের ২০তম জাতীয় সম্মেলন সফলভাবে সম্পন্ন করার মধ্য দিয়ে দলটিতে নতুন নেতৃত্ব বেরিয়ে আসবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেছেন, সম্মেলনের মাধ্যমে দলকে আরও সুসংগঠিত করাই হচ্ছে তাঁদের উদ্দেশ্য।
আজ মঙ্গলবার রাতে গণভবনে দলের ২০তম সম্মেলন উপলক্ষে গঠিত প্রস্তুতি কমিটির সভার সূচনা বক্তব্যে শেখ হাসিনা এসব কথা বলেন।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আগামী ২০তম জাতীয় সম্মেলন সফলভাবে সম্পন্ন করার মধ্য দিয়ে নতুন নেতৃত্ব বেরিয়ে আসবে। আমরা যেহেতু সরকারের আছি, তাই মানুষের আর্থসামাজিক উন্নয়নে যেসব পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে, সেগুলো সরকারের পক্ষ থেকে বাস্তবায়ন কাজ করব। পাশাপাশি দলের পক্ষ থেকেও এগুলো বাস্তবায়নে সরকারকে সহযোগিতা করতে হবে, যাতে সুষ্ঠুভাবে সে কাজগুলো করতে পারি।’ তিনি বলেন, ‘মনে রাখতে হবে, আমরা এ দেশকে ক্ষুধামুক্ত, দারিদ্র্যমুক্ত সোনার বাংলাদেশ করব। এ প্রত্যয় নিয়েই এবারের সম্মেলন। আমরা বিশ্বাস করি, আমরা সফল হবই।’

এমডিজির মতো এসডিজি বাস্তবায়নে দৃঢ়প্রত্যয় ব্যক্ত করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা মনে করি, একমাত্র বাংলাদেশেই পারবে এটা সফলভাবে বাস্তবায়ন করতে। বিশ্বাস করি, এমডিজির মতো এসডিজিও আমরা বাস্তবায়ন করতে পারব। সেটা হবে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকলে, আবার সেই লুটেরারা ক্ষমতায় এলে হবে না। কারণ তাদের কাজ হলো ক্ষমতায় এসে লুটপাট করা জনগণের টাকা মেরে খাওয়া, এতিমের টাকা মেরে খাওয়া—এই চলতে থাকবে, অত্যাচার নির্যাতন হবে।
শেখ হাসিনা বলেন, ভাষা আন্দোলন থেকে শুরু করে মুক্তিযুদ্ধ—সবই হয়েছে আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে। মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন ঘটানোর জন্য, অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য বঙ্গবন্ধু সব সময় কাজ করে গেছেন। যখনই আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এসেছে, এ দেশের জনগণ কিছু পেয়েছে। কারণ আওয়ামী লীগ জনগণের সংগঠন।
বাংলাদেশ আজ উন্নয়নের রোল মডেল উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘বাংলাদেশ আজ একটা সম্মানের জায়গায় এসে দাঁড়িয়েছে। আমাদের ওপর ঝড়ঝাপটা কম যায়নি। দুর্নীতির অপবাদ দেওয়ার চেষ্টা করা হয়েছে। ক্ষমতা থেকে সরাবে বলে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে মানুষ হত্যা করেছে। নানা ঘটনা, দেশে এবং আন্তর্জাতিক পর্যায়ে ঘটানো হয় আমাদের ক্ষমতা থেকে সরানো জন্য।
কিন্তু আওয়ামী লীগ জনগণের আস্থা-বিশ্বাস অর্জন করেছে। জনগণের আস্থা-বিশ্বাস ছিল বলেই সব ঝড়ঝাপটার মোকাবিলা করে বলীয়ান হয়ে এ দেশের উন্নয়নের গতি অব্যাহত রাখতে পেরেছি। গতি ধরে রেখেছি বলেই প্রবৃদ্ধির হার ৭ শতাংশের ওপরে উন্নীত করতে পেরেছি। আমাদের একটাই লক্ষ্য থাকবে দারিদ্র্যের হার কমিয়ে আনা।
বৈঠকে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম, আওয়ামী লীগ নেতা আমির হোসেন আমু, তোফায়েল আহমেদ, সৈয়দা সাজেদা চৌধুরী, মতিয়া চৌধুরী, মোহাম্মদ নাসিম, শেখ ফজলুল করিম সেলিম, ওবায়দুল কাদের, নূহ-উল-আলম লেনিন, মাহবুব উল আলম হানিফ, জাহাঙ্গীর কবির নানক, খায়রুজ্জামান লিটন, খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, অসীম কুমার উকিল, মৃণাল কান্তি¯দাস, এনামুল হক শামীম, আমিনুল ইসলাম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

পিএনএস/মো: শ্যামল ইসলাম রাসেল


 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech