চ্যাম্পিয়নস ট্রফির আইসিসি একাদশে তামিম

  

পিএনএস ডেস্ক : চ্যাম্পিয়নস ট্রফিকে সেমিফাইনালে বিদায় বলে দিয়েছে বাংলাদেশ। ফলে দুর্দান্ত এক টুর্নামেন্ট চারটি ম্যাচেই শেষ হয়েছে তামিম ইকবালের। সে দুঃখ কিছুটা হলেও ভুলতে পারেন তামিম। আইসিসি আজ চ্যাম্পিয়নস ট্রফির সেরা একাদশের নাম ঘোষণা করেছে। সেখানে বাংলাদেশের একমাত্র ক্রিকেটার হিসেবে জায়গা করে নিয়েছেন তামিম।

শুধু আইসিসির বেছে নেওয়া একাদশ বলে নয়, তামিমের গর্ব হতে পারেন আরেকটি কারণে। এই একাদশ বেছে নেওয়ার দায়িত্বে ছিলেন মাইকেল আথারটন, সৌরভ গাঙ্গুলি, রমিজ রাজা, লরেন্স বুথ (উইজডেন অ্যালম্যানাকের সম্পাদক), জুলিয়ান গায়ার (এএফপির ক্রিকেট সংবাদদাতা) এবং জিওফ অ্যালারডাইস (আইসিসির মহাব্যবস্থাপক)।
এই নির্বাচক দল বেছে নিয়েছে তাদের চোখে এবারের সেরা একাদশ। পরিসংখ্যানের সঙ্গে ম্যাচের পরিস্থিতি বদলে দেওয়ার ক্ষমতাকে গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। আর এ কারণেই টুর্নামেন্টের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান নেওয়ার পরও জায়গা হয়নি রোহিত শর্মার।

তবে তামিম নিজেও পছন্দের ওপেনিংয়ে জায়গা পাননি। ইনিংস উদ্বোধনের দায়িত্ব পেয়েছেন সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক শিখর ধাওয়ান ও ফাইনালের সেরা ফখর জামান। তামিমকে তিনে জায়গা করে দিতে কোহলিকে নামতে হচ্ছে চারে। এরপরই আছেন জো রুট। দলের একমাত্র অলরাউন্ডার বেন স্টোকস। সরফরাজ আহমেদ আছেন উইকেটরক্ষক ও অধিনায়ক দুই ভূমিকাতেই।

বোলিংয়ে তিন পেসার ও এক স্পিনারে ভরসা রেখেছেন জুরিরা। আদিল রশিদের আগে বল হাতে নেওয়ার দায়িত্ব পড়েছে ভুবনেশ্বর কুমার, জুনায়েদ খান ও হাসান আলীর ভাগে। অর্থাৎ চার সেমিফাইনালিস্ট দল থেকেই টুর্নামেন্টের সেরা একাদশ বেছে নিয়েছেন নির্বাচকেরা। শুধু দ্বাদশ ব্যক্তি হিসেবে সুযোগ পেয়েছেন নিউজিল্যান্ডের কেন উইলিয়ামসন।

আইসিসির চ্যাম্পিয়নস ট্রফি একাদশ : শিখর ধাওয়ান (৩৩৮ রান), ফখর জামান (২৫২ রান), তামিম ইকবাল (২৯৩ রান), বিরাট কোহলি (২৫৮ রান), জো রুট (২৫৮ রান), বেন স্টোকস (১৮৪ রান ও ৩ উইকেট), সরফরাজ আহমেদ (অধিনায়ক; ৭৬ রান ও ৯ ডিসমিসাল), আদিল রশিদ (৭ উইকেট), জুনায়েদ খান (৮ উইকেট), ভুবনেশ্বর কুমার (৭ উইকেট), হাসান আলী (১৩ উইকেট)। দ্বাদশ ব্যক্তি : কেন উইলিয়ামসন (২৪৪ রান)।

পিএনএস/জে এ /মোহন

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech