অবশেষে মুখ খুললেন ভিলিয়ার্স!

  

পিএনএস ডেস্ক : বিশ্বকাপের দ্বাদশ আসরে হতাশাজনক পারফর্ম্যান্স ছিল দক্ষিণ আফ্রিকার। দলের সেরা তারকাদের বোলিং-ব্যাটিংয়ে ছিল না কোন ছন্দ। একের পর এক পরাজয়ে গ্রুপ পর্বেই নাজেহাল হতে হয় প্রোটিয়াদের। দলের এমন বাজে অবস্থায় গুঞ্জন ওঠে স্বেচ্ছায় আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারকে বিদায় জানানো এবি ডি ভিলিয়ার্স নাকি বিশ্বকাপে দলে ভিড়তে চেয়েছিলেন। তখন কত সমালোচনাই না শুনতে হয়েছিল তাকে!

এতদিন এ ব্যাপারে কথা বলেননি তিনি। এবার মুখ খুলেছেন এই প্রোটিয়া কিংবদন্তি।
ক্রিকইনফোকে দেয়া এক বিবৃতিতে পুরো ঘটনার ব্যাখ্যা দিয়েছেন ডি ভিলিয়ার্স। যেখানে তিনি লিখেছেন, ‘আমার অবসর ঘোষণার দিনে ব্যক্তিগতভাবে (দক্ষিণ আফ্রিকান ক্রিকেটসংশ্লিষ্ট) একজন জিজ্ঞেস করেছিল বিশ্বকাপে আমার খেলার দরজা খোলা আছে কি না। উত্তরে হ্যাঁ বলেছিলাম। এখন মনে হচ্ছে, না বলাই উচিত ছিল।’

পুরো ঘটনা ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে তিনি জানান, ‘ফাফ (ফাফ ডু প্লেসি) আর আমি স্কুলের সময় থেকে বন্ধু। বিশ্বকাপের দল ঘোষণার দুই দিন আগে এমনিতেই কথা বলার জন্য ওর সঙ্গে যোগাযোগ করেছিলাম। ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে আমি খুব ভালো ফর্মে ছিলাম। কথায় কথায় বলেছিলাম, আমাকে দরকার হলে আমি খেলতে রাজি। তবে সেটা দরকার হলে! আমি কোনো ধরনের কোনো দাবি রাখিনি। টুর্নামেন্টের ঠিক আগে দলে ঢোকার জন্য জোরাজুরি করার তো কোনো মানেই হয় না।’

দল বিশ্বকাপ নিয়ে ব্যস্ত থাকায় এতদিন সমালোচনা হলেও ব্যাখ্যাটা দেননি ভিলিয়ার্স। বিতর্কিত ব্যাপার নিয়ে কথা বলে দলের মনোযোগ ব্যাহত করতে চাননি তিনি।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech