পাকিস্তানে যেয়ো না, শ্রীলঙ্কাকে সন্ত্রাসীদের হুমকি

  


পিএনএস ডেস্ক: পাকিস্তানের মাটিতে খেলতে যাওয়ার কথা শ্রীলঙ্কার। ২৭ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু এই সিরিজ। কিন্তু এরই মধ্যে শ্রীলঙ্কান সরকারকে হুমকি দেওয়া হয়েছে, পাকিস্তানে ক্রিকেট খেলতে গেলে আবার সন্ত্রাসী হামলার শিকার হতে হবে তাদের।

স্বাভাবিকভাবেই পাকিস্তান-শ্রীলঙ্কা সিরিজ নিয়ে তৈরি হয়েছে অনিশ্চয়তা। নড়েচড়ে বসেছে লঙ্কান বোর্ড। সফরের জন্য পাকিস্তান উপযুক্ত জায়গা কি না, সেটি পুনর্বিবেচনা করছে তারা। নিরাপত্তাব্যবস্থা নতুন করে পর্যবেক্ষণ করেই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট।

পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি) এর আগে নিশ্চয়তা দিয়েছিল, আন্তর্জাতিক সিরিজ আয়োজন করার জন্য এখন পাকিস্তান নিরাপদ স্থান। পরিস্থিতি বিবেচনা করে পাকিস্তানের সঙ্গে একমত হয়েছিল শ্রীলঙ্কাও। করাচি ও লাহোরে হওয়ার কথা ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি সিরিজ। কিন্তু সন্ত্রাসীদের নতুন এই হুমকিতে সব পরিকল্পনা ভেস্তে যাওয়ার পথে।

পাকিস্তানের নিরাপত্তা পরিস্থিতি শ্রীলঙ্কাকে সন্তুষ্ট করতে না পারলে এ সফর বাতিল হয়ে যেতে পারে। সিরিজ আয়োজিত হলেও সেটি যেন নিরপেক্ষ ভেন্যুতে হয়, সে দাবি উঠতে পারে।

লঙ্কান বোর্ডের এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, পাকিস্তানের সফরের বিষয়টা নিয়ে আবার ভেবে দেখছে শ্রীলঙ্কান ক্রিকেট। পাকিস্তানের নিরাপত্তাব্যবস্থা নিয়ে আবার মূল্যায়ন করবে শ্রীলঙ্কা। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে আসা নির্দেশ অনুযায়ী এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। নির্ভরযোগ্য সূত্র থেকে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে এ হুমকির খবর এসেছে, লঙ্কান দল পাকিস্তানে গেলে তাদের ওপর সন্ত্রাসী হামলা হবে।

এর আগে অবশ্য নিরাপত্তার কারণ দেখিয়ে ১০ জন লঙ্কান ক্রিকেটার পাকিস্তান সফরে যেতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন। তাঁরা হলেন লাসিথ মালিঙ্গা, অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুস, দিমুথ করুণারত্নে, দিনেশ চান্দিমাল, থিসারা পেরেরা, আকিলা ধনঞ্জয়া, ধনঞ্জয়া ডি সিলভা, কুশল পেরেরা ও নিরোশান ডিকভেলা।

২০০৯ সালে লাহোরে শ্রীলঙ্কা দলের ওপরই সন্ত্রাসী হামলা হয়েছিল। আর এর পরপরই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট পাকিস্তান থেকে নির্বাসিত।

পিএনএস/আনোয়ার

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech