পূজার সঙ্গে সাতপাকে বাঁধা পড়লেন সৌম্য সরকার

  

পিএনএস ডেস্ক: খুলনার মেয়ে প্রিয়ন্তি দেবনাথ পূজাকে বিয়ে করলেন ক্রিকেটার সৌম্য সরকার। বুধবার রাতে খুলনা ক্লাবে এ বিয়ের আয়োজন করা হয়।

সৌম্যের বাবা অবসরপ্রাপ্ত জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা কিশোরী মোহন সরকার। প্রিয়ন্তি দেবনাথের বাবা গোপাল দেবনাথ ব্যবসায়ী ও মা মাধবী দেবনাথ গৃহিণী। তাদের বাড়ি খুলনা শহরের টুটপাড়া এলাকায়। পূজা বর্তমানে ‌‌ও লেভেল পড়ছেন ঢাকার একটি কলেজে। তিন বোনের মধ্যে তিনি সবার ছোট।

বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে চারটি প্রাইভেটকার, আটটি মাইক্রোবাস ও ছয়টি বাসের বহরে ৫০০ বরযাত্রী নিয়ে খুলনার উদ্দেশে রওনা হন সৌম্য। রাত ৮টায় তিনি খুলনায় এসে পৌঁছান।

এর আগে দুপুরে সাতক্ষীরা শহরের মধ্য কাটিয়ার লাল-সবুজ বাড়িতে ঢাক-ঢোল, কাশীর বাদ্য আর উলুধ্বনিতে পরিবার-পরিজনের উপস্থিতিতে গায়ে হলুদ হয়ে যায় সৌম্য সরকারের। এ সময় হলুদ মাখিয়ে সৌম্য সরকারকে জন্য আশীর্বাদ করেন বাবা-মা, ভাই-ভাবিসহ পরিবারের অন্য সদস্য এবং প্রতিবেশীরা।

সৌম্য সরকারের মামা স্বদেশ কুমার স্বদেশ কুমার সরকার বলেন, সনাতন ধর্মীয় রীতি-নীতি মেনে রাত ১১টায় সৌম্য সরকারের বিয়ে সম্পন্ন হয়েছে।

সৌম্যর বাবা কিশোরী মোহন সরকার বলেন, আমার ছোট ছেলে সৌম্য সরকারের সনাতন ধর্মীয় রীতিতে রাত ১১টায় বিয়ে সম্পন্ন হয়েছে।

প্রসঙ্গত, সৌম্য সরকার বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের একজন গুরুত্বপূর্ণ ওপেনিং ক্রিকেটার। ১ ডিসেম্বর, ২০১৪ তারিখে মিরপুরের শেরেবাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত সফরকারী জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজের পঞ্চম ও শেষ একদিনের আন্তর্জাতিকে তার অভিষেক ঘটে। ওই খেলায় তিনি ১৮ বলে চার বাউন্ডারির সাহায্যে ২০ রান সংগ্রহ করেন। খুব অল্প সময়ের মধ্যেই তিনি বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ হয়ে যান।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন