ভবন ধ্বসের আশংকায় পাকুন্দিয়ায় খোলা আকাশের নিচে পাঠদান

  

পিএনএস, পাকুন্দিয়া (কিশোরগঞ্জ) : কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়া উপজেলার চরপলাশ উচ্চ বিদ্যালয় ভবনের সামনের তিনটি পিলার সম্প্রতি কালবৈশাখী ঝড়ে বিধ্বস্ত হয়েছে। ফলে ভবন ধ্বসের আশংকায় বর্তমানে খোলা আকাশের নিচে চলছে শিক্ষার্থীদের পাঠদান। কিন্তু বৃষ্টি মৌসুম বলে আকাশে মেঘ দেখলেই ছুটি হয়ে যায় বিদ্যালয়টি। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে ইতোমধ্যেই স্থানীয় সংসদ সদস্য, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে লিখিত আবেদন করেছেন।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. আবদুল মান্নান জানান, এলাকার অবহেলিত শিক্ষার্থীদের শিক্ষা প্রদানের লক্ষে এ বিদ্যালয় ১৯৬৪ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়। বিদ্যালয়ের উত্তর পার্শ্বের ভবনটি অত্যন্ত পুরাতন হওয়ার ফলে সম্প্রতি কাল-বৈশাখী ঝড়ে বিদ্যালয় ভবনের সামনের তিনটি পিলার ভেঙ্গে যাওয়ায় ভবনটি সম্পূর্ণ ঝুকিপূর্ণ অবস্থায় রয়েছে। ছাত্র-ছাত্রীরা ভবনে প্রবেশ করতে সাহস পাচ্ছে না। বর্তমানে বিদ্যালয়ে ৫০০ শতাধিক শিক্ষার্থী ও ১৪ জন শিক্ষক-কর্মচারী রয়েছে। কালবৈশাখী ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্থ ভবনটি ভেঙ্গে অতি সত্ত্বর নতুন ভবন নির্মাণ প্রয়োজন। অন্যথায় যে কোন সময় বড় ধরণের দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। এ ঘটনায় বিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে স্থানীয় সংসদ সদস্য, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে লিখিত আবেদন করা হয়েছে।

সরজমিন দেখা যায়, তিনটি পিলার ভেঙ্গে যাওয়ার বিদ্যালয়ের ভবনটি সম্পূর্ণ ঝুকিপূর্ণ অবস্থায় রয়েছে। এখানে খোলা আকাশের নিচে পাঠদান করছে শিক্ষার্থীরা। উপজেলা নির্বাহী অফিসার অন্নপূর্ণা দেবনাথ বলেন, আমি বিদ্যালয়টি পরিদর্শন করেছি। শীঘ্রই বিদ্যালয়ের ভবন নির্মাণের জন্য আর্থিক সহায়তা ও টিন বরাদ্দ দেয়া হবে।

পিএনএস/মোঃ শ্যামল ইসলাম রাসেল

 

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech