নবীনগরে এসআই’র ‘দুর্নীতি’ খুঁজতে তদন্ত শুরু

  



পিএনএস, ব্রাহ্মণবাড়িয়া: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) হারুনের বিরুদ্ধে সাধারণ ডায়েরির (জিডি) তদন্ত করার সময় দুর্নীতির অভিযোগ করেছেন প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. মো. জাহাঙ্গীর আলম। জেলা পুলিশ সুপারের কাছে এ অভিযোগ করেন তিনি।

ওই অভিযোগের পর (১৬-০৯-২০১৭ইং) শনিবার এসআই হারুনের বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু করা হয়েছে। তদন্তের দায়িত্ব পেয়েছেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সহকারী পুলিশ সুপার মো. সাঈদ। পুলিশ ও সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, হবিগঞ্জ জেলার লাখাই উপজেলার প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. মো. জাহাঙ্গীর আলম নবীনগর উপজেলায় কর্মরত ছিলেন।

তখন তার দপ্তরে ভেটেরিনারি ফিল্ড অ্যাসিস্ট্যান্ট (ভিএফএ) মো. বজলুর রহমান কর্মরত ছিলেন। বজলুরের বিভিন্ন অনিয়ম ও কর্তৃপক্ষের বৈধ আদেশ অমান্য করার অভিযোগে তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার কাছে সুপারিশ করেন জাহাঙ্গীর আলম।

এসব অভিযোগের তদন্ত শুরু হলে গত বছরের ১২ ডিসেম্বর বজলুরের নেতৃত্বে ইব্রাহিমপুর গ্রামের আলী আজমসহ কয়েকজন জাহাঙ্গীরের ওপর হামলা করে। খবর পেয়ে পুলিশ তাকে উদ্ধার করে।

জাহাঙ্গীর আলম জানান, ওই হামলার পর তিনি নবীনগর থানায় জিডি করেন। ওউ জিডির তদন্ত কর্মকর্তা এসআই হারুন হামলাকারীদের থেকে মোটা অঙ্কের টাকা গ্রহণ করেন। তার বিনিময়ে এসআই হারুন হুবহু মুখস্থ করিয়ে এবং হুমকি দিয়ে সাক্ষ্য জবানবন্দি করেন।

এ বিষয়ে এসআই হারুন বলেন, ‘আমার বিরুদ্ধে আনা অভিযাগ মিথ্যা, ভিত্তিহীন। আইন মেনেই তদন্তকাজ করেছি।

পিএনএস/আনোয়ার

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech