ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বিভিন্ন উপজেলায় মূর্তি গড়া কাজ অনেকটাই শেষ পর্যায়ে

  



পিএনএস, ব্রাহ্মণবাড়িয়া : প্রতিমা গড়ার কাজ অনেকটাই শেষ, চলছে রঙতুলির কাজ দশ হাতে দশ চক্র নিয়ে দেবী দুর্গা আসছেন অশুভ শক্তি বিনাশ করতে। পঞ্জিকা মতে, সনাতনধর্মী দুর্গোৎসবের মহাষষ্ঠী ২৬ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার এবং বিজয়া দশমী ৩০ সেপ্টেম্বর।

এদিকে সরাইল উপজেলাসহ বিভিন্ন ইউনিয়নে মূর্তি গড়া কাজ অনেকটাই শেষ পর্যায়ে। পোশাক আর গহনা পরানো হলেই ঢাক-ঢোল, সানাই বাজিয়ে দেবী দুর্গা উঠবে বেদিতে। রঙতুলির শেষ আচড় দিয়ে দুর্গা দেবীর মূর্তিকে পরিপূর্ণ রূপ দিচ্ছেন মৃৎশিল্পীরা। মৃৎশিল্পিদের চোখে ঘুম নেই। দশ হাতে দুর্গা দেবীর ত্রিশুল দিয়ে অসুরকে বধ করা দৃশ্য প্রতিটি পূজা মণ্ডপে। দেবী দুর্গার সঙ্গে বিদ্যার দেবী স্বরসতী, ধনসম্পদের দেবী লক্ষ্মী এবং দেবতা কার্তিক, গনেশসহ নানা প্রতিমার রূপকে শিল্পীরা ফুটিয়ে তুলছেন নিপুণ হাতের ছোঁয়া। গ্রামে, পাড়ায়, হিন্দু পরিবারগুলোতে দুর্গোৎসবের সাজসাজ রব।

পূজার কাজের ব্যস্ততা নিয়ে মৃৎশিল্পী রবি পালের সঙ্গে কথা হয় তিনি বলেন, এবছর আমরা ১৩/১৪টি পূজা মণ্ডপের কাজ করছি। গত দুই মাস ধরে আমাদের প্রতিমা তৈরির কাজ চলছে। দিন যতই ঘনিয়ে আসছে আমাদের ব্যস্ততাও ততই বাড়ছে।

সরাইল থানার ওছি তদ্ন্ত কামরুজ্জামান জান্না পুলিশ শান্তি -শৃঙ্খঙ্গলা বিশেষ শাখার তথ্যানুযায় সরাইল উপজেলায় ৪৮টি পূজা উদ্যাপন কমিটি ।

এ ব্যাপারে উপজেলা পূজা উদ্যাপন পরিষদ কমিটি সূএে জানান,উপজেলা প্রশাসনের সঙ্গে আমাদের নেতৃবৃন্দের বৈঠক হচ্ছে। পূজা মণ্ডপে সর্বোচ্চ নিরাপত্তার নিশ্চয়তা দেয়া হয়েছে। আমরা আশা করছি সবার সহযোগিতায় এবারও শান্তিপূর্ণভাবেই পূজা সম্পন্ন করতে পারবো।

জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (এএসপি) মো. ইকবাল হোসাইন জানান, আমরা অতিশিগগিরই উপজেলা পোজা উদ্যাপন পরিষদের সাথে আলোচনায় বসব। শান্তি -শৃঙ্খঙ্গলা বজায় রাখার স্বার্থে যা করণীয় আমরা সব ব্যবস্হায় করব। এছাড়া যেখানে পূজাঁ মণ্ডপগুলোর কাজ চলছে সেখানে আমাদের মোবাইল টিম কাজ করছে।

পিএনএস/আনোয়ার

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech