কুমিল্লায় তর্কে জড়িয়ে প্রাণ গেল সাবেক পুলিশ সদস্যের

  

পিএনএস, কুমিল্লা প্রতিনিধি : কুমিল্লার মুরাদনগরে বাড়ির সীমানা নিয়ে দ্বন্দ্বের জেরে বাকবিতন্ডার একপর্যায়ে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে ঘটনাস্থলেই নজরুল ইসলাম নান্নু (৬১) নামে অবসরপ্রাপ্ত এক পুলিশ সদস্যের মৃত্যু হয়েছে। গত বুধবার সন্ধ্যায় উপজেলার কামাল্লা ইউনিয়নের নেয়ামতপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় মামলার খবরে এলাকায় তোলপাড় চলছে।

জানা যায়, বাড়ির সীমানা নিয়ে মৃত আক্কাছ আলী চৌধুরীর ছেলে নজরুল ইসলাম নান্নু ও পাশের বাড়ির মৃত হাজী আব্দুল লতিফের ছেলে আব্দুল করিমের মধ্যে দীর্ঘদিন যাবত দ্বন্দ্ব চলে আসছে। উক্ত দ্বন্দের জের ধরে বুধবার সন্ধ্যায় বাকবিতন্ডা ও হাতাহাতি হয়। এক পর্যায়ে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে ঘটনাস্থলেই নজরুল ইসলাম নান্নু মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। তাৎক্ষনিক তাকে মুরাদনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করে। প্রকৃত হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর বিষয়টি ভিন্নখাতে প্রবাহিত করার জন্য পুলিশকে খবর দিয়ে নজরুল ইসলাম নান্নুর লাশ থানায় দিয়ে দেয়।

এ ঘটনায় নিহতের ছেলে মনিরুল হক চৌধুরী বাদী হয়ে বাড়ির সীমানা নিয়ে দ্বন্দ্বের জেরে প্রতিপক্ষ আব্দুল করিম ও তার স্ত্রী শাহিদা আক্তারসহ আরো কয়েকজনের বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানা গেছে। এলাকাবাসী জানায়, নজরুল ইসলাম নান্নুর দীর্ঘদিন যাবত হৃদরোগে আক্রান্ত। যার ফলে সময় থেকে চাকুরি থেকে স্বইচ্ছায় অবসরে চলে আসে। এরপূর্বেও নজরুল ইসলাম নান্নু আরো দুইবার হৃদরোগে আক্রান্ত হয়েছিল, দীর্ঘদিন চিকিৎসার পর কিছুটা সুস্থ্য হয়। অপর দিকে নিহতের ছেলে মনিরুল হক চৌধুরী জানান, বাড়ির সীমানা নিয়ে দ্বন্দ্বের জের ধরে প্রতিপক্ষরা আমার বাবাকে পিটিয়ে ও শ^াসরুদ্ধ করে হত্যা করে। তার ডান কানের নীচে আঘাতের চি‎‎হ্ন রয়েছে। আমি আমার বাবার হত্যাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক বিচার চাই।

এ বিষয়ে মুরাদনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এসএম বদিউজ্জামান জানান, ময়নাতদন্তের জন্য নিহতের মরদেহ থানায় আনা হয়েছে। এ ঘটনায় মামলার প্রক্রিয়া চলছে।

পিএনএস/মোঃ শ্যামল ইসলাম রাসেল


 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech