মেয়েকে উত্ত্যক্ত করার প্রতিবাদ করায় বাবাকে মারধর

  

পিএনএস, তানোর (রাজশাহী) সংবাদদাতা : রাজশাহীর তানোর উপজেলায় মেয়েকে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় বখাটেরা মেয়ের বাবাকে বাঁশ দিয়ে পিটিয়ে হাত ভেঙ্গে দিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। উপজেলার একটি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় সোমবার তানোর থানায় মেয়ের বাবা তিনজনকে অভিযুক্ত করে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

অভিযুক্তরা হলেন উপজেলার নড়িয়াল গ্রামে সাম্পা আলীর ছেলে শাকিল হোসেন (১৫) আর সহযোগীরা হলেন, একই এলাকা হাবিবুর রহমান (১৪) ও ফয়সাল হোসেন (১৫)।

মেয়েটির বাবা ও অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, উপজেলার নড়িয়াল গ্রামে দুরুল হাদিস ইসলামীয়া দাখিল মাদ্রাসায় জনৈক ব্যক্তির মেয়ে ষষ্ঠ শ্রেণিতে পড়াশোনা করে। ওই ছাত্রী মাদ্রাসা যাওয়া-আসার পথে ওই গ্রামেরই সাম্পা আলীর ছেলে শাকিল হোসেন (১৫) দীর্ঘদিন থেকে ওই ছাত্রীকে উত্ত্যক্ত করে আসছিল।

বিষয়টি ওই ছাত্রী তার বাবাকে অবহিত করলে তার বাবা শাকিল এবং তার বন্ধুদের এ ধরনের কার্যকলাপ থেকে বিরত থাকতে বলেন। পরে জনৈক ছাত্রীর বাবা পার্শ্ববর্তী খড়িবাড়ি বাজার থেকে ভ্যানযোগে বাড়ি ফেরার পথে বখাটে শাকিল তার দুই বন্ধু হাবিবুর ও ফয়সালকে সঙ্গে নিয়ে পথের মধ্যে ওই ছাত্রীর বাবাকে বাঁশের লাঠি দিয়ে পিটিয়ে হাত ভেঙে দেয়।

স্থানীয় লোকজন ওই ছাত্রীর বাবাকে উদ্ধার করেন। তিনি তানোর স্বাস্থ্যকেন্দ্রে চিকিৎসা নিয়েছেন। নড়িয়াল দুরুল হাদিস ইসলামীয়া দাখিল মাদ্রাসার সুপার আব্দুর রহিম বলেন, ওই ছাত্রী আচরণ শান্ত প্রকৃতির। বেশ কিছুদিন থেকে শাকিল ও তার বন্ধুরা তাকে উত্ত্যক্ত করছে। আমরা এর বিচার চাই।

এ নিয়ে তানোর থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রেজাউল ইসলাম বলেন, লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। অভিযোগের সত্যতা পেলে বখাটেদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

পিএনএস/মোঃ শ্যামল ইসলাম রাসেল

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech