কাপাসিয়ায় বেশি দামে লবণ বিক্রির দায়ে ৯ ব্যবসায়ীকে জরিমানা

  

পিএনএস, কাপাসিয়া প্রতিনিধি : গাজীপুরের কাপাসিয়া উপজেলা সদর বাজারে ১৯ নভেম্বর মঙ্গলবার বিকালে হঠাৎ লবণের দাম বৃদ্ধির গুজবে বেশি দামে লবণ বিক্রি করার অপরাধে ভ্রাম্যমাণ আদালতে ৯ লবণ ব্যবসায়ীকে ৯০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। কাপাসিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোসাঃ ইসমত আরা সন্ধ্যায় কাপাসিয়া বাজার, সন্ধ্যার পর রাণীগঞ্জ বাজার ও রাওনাট বাজারে অভিযান চালিয়ে সর্বমোট নগদ উল্লেখিত টাকা জরিমানা আদায় করেন।

জানা যায়, মঙ্গলবার দুপুর থেকে কাপাসিয়ার বিভিন্ন বাজারে হঠাৎ করে লবণের দাম বৃদ্ধির গুজব ছড়িয়ে পড়ে। এতে অতিলোভী, মুনাফাখোর ব্যবসায়ীরা প্রতি কেজি লবণ ১০ থেকে ১৫ টাকা অতিরিক্ত মূল্যে বিক্রি করতে থাকে। লবণের দাম বৃদ্ধির গুজবের ফলে মানুষ প্রয়োজনের অতিরিক্ত লবণ কিনতে শুরু করে। হঠাৎ লবণের দোকানে ভীড় জমে যায়। গুজবে লবণের দাম বৃদ্ধির কথা শুনে কাপাসিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ ইসমত আরা কাপাসিয়া, রাওনাট ও রানীগঞ্জ বাজারে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন। ভ্রাম্যমাণ আদালতে উদ্দেশ্যমূলকভাবে বেশি দামে ও একই ক্রেতার কাছে প্রয়োজনের অতিরিক্ত লবণ বিক্রি করার অপরাধে কাপাসিয়া বাজারের মেসার্স অসিত এন্ড ব্রাদার্স ও সজিব ভ্যারাইটিস স্টোরকে ২০ হাজার টাকা করে, সেলিম স্টোরকে ১৫ হাজার টাকা, নাজিমউদ্দিন স্টোরকে ১০ হাজার টাকা, বেলায়েত স্টোরকে ৫ হাজার টাকা, মুসলিম স্টোরকে ৩ হাজার টাকা এবং বিজয় স্টোরকে ২ হাজার টাকা জরিমানা করেন। সন্ধ্যার পরে দুর্গাপুর ইউনিয়নের রাণীগঞ্জ বাজারে অভিযান চালিয়ে আল্লার দান স্টোরকে ৫ হাজার টাকা ও রাওনাট বাজারের নজরুল স্টোরকে ১০ হাজার টাকা সহ মোট ৯০ হাজার টাকা জরিমানা করেন।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোসাঃ ইসমত আরা জানান, লবণের দাম বৃদ্ধির বিষয়টি সম্পূর্ণ গুজব। কোনো লবণ ব্যবসায়ী নির্ধারিত মূল্যের চেয়ে বেশি দামে লবণ বিক্রি করতে পারবেন না। এটা অপরাধ। কাপাসিয়া থানার ওসি মোঃ রফিকুল ইসলাম গুজবে কান না দেয়ার জন্য সকলের প্রতি আহবান জানান। তিনি বলেন, দেশে পর্যাপ্ত পরিমাণ লবণ মজুত রয়েছে। দেশে লবণের কোন সংকট নেই। এ ছাড়া লবণ সংকটের গুজবে ব্যবসায়ী ও সাধারণ ক্রেতাদের বিভ্রান্ত না হওয়ার জন্য কাপাসিয়া বাজার ব্যবসায়ী সমিতির পক্ষ থেকে সচেতনতামূলক মাইকিং করা হয়।

পিএনএস/মোঃ শ্যামল ইসলাম রাসেল

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech