ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ডা. ডিউকের বিরুদ্ধে মামলা

  

পিএনএস ডেস্ক: ব্রাহ্মণবাড়িয়া খ্রিস্টিয়ান মেমোরিয়াল হাসপাতালের পরিচালক ডা. ডিউক চৌধুরীর বিরুদ্ধে আরও একটি মামলা হয়েছে।

পাওনা টাকার জন্য এক রাজমিস্ত্রি সর্দার বাদী হয়ে সোমবার অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে এই মামলা করেন।

আদালত মামলাটি তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সদর মডেল থানা পুলিশকে নির্দেশ দিয়েছেন।

এর আগে ১২ নভেম্বর নওশীন আহমেদ দিয়া (২৯) নামে এক স্কুলশিক্ষিকাকে ভুল চিকিৎসা এবং ভুল ইনজেকশন ও ওষুধ প্রয়োগে হত্যার অভিযোগে ডা. ডিউক চৌধুরীর বিরুদ্ধে মামলা হয়। ওই মামলায় হাসপাতালের অপর ২ চিকিৎসক অরুনেশ্বর পাল অভি ও মো. শাহাদাত হোসেন রাসেলও আসামি।

আর এবার ডা. ডিউকের হাসপাতাল বিল্ডিংয়ের ঠিকাদার তার পাওনা টাকার জন্য মামলা করলেন।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার নাচোল উপজেলার হামিদপুর গ্রামের রাজমিস্ত্রির সর্দার মো. তরিকুল ইসলাম বাদী হয়ে দায়ের করা এ মামলার অভিযোগে বলা হয়, ২০১৫ সালের ৭ মে ডা. ডিউক চৌধুরীর সঙ্গে তার বিল্ডিং নির্মাণে চুক্তি হয়। আন্ডার গ্রাউন্ডে যাবতীয় কাজসহ গ্রাউন্ড ফ্লোর প্রতি বর্গফুট ২৮০ টাকা এবং বাকি প্রতি ছাদ ১৭৫ টাকা বর্গফুট হারে কাজ করার চুক্তি হয়।

এরপর ২০১৫ সালের ৫ জুলাই থেকে ২০১৮ সালের ২ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত ১১ তলা দালান নির্মাণ সম্পন্ন হয়। এতে মো. তরিকুল ইসলাম ১ কোটি টাকা বিল পাওনা হন। এর মধ্যে ডা. ডিউক ৯২ লাখ ৫০ হাজার টাকা পরিশোধ করেন। বাকি সাড়ে ৭ লাখ টাকা প্রদান না করে তাকে ঘুরাতে থাকেন।

এই ব্যাপারে তরিকুল ইসলাম জানান, টাকা চাইলে তার সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করা হয়। তাকে পুলিশের ভয় দেখান।

মামলার বাদীপক্ষের আইনজীবী শরীফ উদ্দিন জানান, আদালত মামলাটি তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সদর মডেল থানা পুলিশকে নির্দেশ দিয়েছেন।

পিএনএস/ হাফিজ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech