বগুড়ায় ৪০০ টাকার জন্য চাচাকে খুন!

  

পিএনএস ডেস্ক: বগুড়ার শিবগঞ্জে ঈদ উপলক্ষে সেমাইয়ের ব্যবসায় লাভের মাত্র ৪০০ টাকা কম দেওয়া নিয়ে বিরোধের জের ধরে ভাতিজার ছুরিকাঘাতে চাচা শামীম হোসেন (৩৫) খুন হয়েছেন। আজ রোববার সন্ধ্যা সোয়া ৭টার দিকে উপজেলার দেউলী ইউনিয়নের বিহারপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় পুলিশ ভাতিজা রনি মিয়া (২২) ও তার বাবা শাহিনুর মিয়াকে (৪৫) আটক করেছে। নিহত শামীম হোসেন বিহারপুর গ্রামের বাসিন্দা।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, শামীম ও তার বড় ভাই শাহিনুর মিলে ঈদ উপলক্ষে কাঁচামালের ব্যবসার পাশাপাশি সেমাই ও নারিকেল বিক্রির ব্যবসা শুরু করে। রোববার বেচাকেনা শেষে বাড়িতে বসে লাভের টাকার ভাগবাটোয়ারা করা হয়। এতে শামীমের ভাগে ৪০০ টাকা কম হয়। এ নিয়ে দুই ভাইয়ের মধ্যে ঝগড়া ও কথা কাটাকাটি শুরু হয়।

এ সময় শাহিনুরের ছেলে রনি মিয়া বাবার পক্ষ নিয়ে চাচা শামীমের পেটে ছুরিকাঘাত করে। পরে প্রতিবেশিরা গুরুতর অসুস্থ শামীমকে ঠেঙ্গামারা টিএমএসএস মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

খবর পেয়ে প্রতিবেশীরা শাহিনুর ও রনিকে আটক করে পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে তাদেরকে হেফাজতে নেন।

শিবগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিজানুর রহমান বলেন, ‘সেমাইয়ের ব্যবসার লাভের ৪০০ টাকা নিয়ে বিরোধের জের ধরে রনি তার চাচাকে ছুরিকাঘাত করে খুন করে। ঘটনার পর পরই রনি ও তার বাবা শাহিনুরকে আটক করা হয়েছে।’

ওসি আরও বলেন, ‘মরদেহ থানায় আনা হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য আগামীকাল সোমবার সকালে বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসাপাতালে মর্গে পাঠানো হবে।’

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন