বরিশাল নগরীতে পশু কোরবানির জন্য ১৪২টি স্থান নির্ধারণ

  

পিএনএস ডেস্ক : বরিশাল নগরীর ১৪২টি স্থান পশু কোরবানির জন্য নির্ধারণ করেছে সিটি করপোরেশন। নির্দিষ্ট স্থানের বাইরে পশু কোরবানি না করার জন্য নগর ভবন থেকে জনসাধারণের প্রতি অনুরোধ জানানো হয়েছে। নির্ধারিত স্থান থেকে ওইদিন রাত ৮টার মধ্যে নগরীর সকল কোরবানির বর্জ্য অপসারণ করার কথা জানিয়েছে সিটি করপোরেশন।

সিটি করপোরেশনের ভেটেরিনারি সার্জন ও প্রধান পরিচ্ছন্নতা কর্মকর্তা মো. রবিউল ইসলাম জানান, এবার নগরীর ৩০টি ওয়ার্ডে পশু কোরবানির জন্য ১৪২টি স্থান নির্ধারণ করা হয়েছে। সুষ্ঠু বর্জ্য ব্যবস্থাপনার জন্য কোরবানির আগে সংশ্লিষ্টদের মাঝে সিটি করপোরেশন থেকে প্লাস্টিকের বস্তা এবং ব্লিচিং পাউডার সরবরাহ করা হচ্ছে। গত বছর নগরীর ৩০টি ওয়ার্ডে ৭ হাজার প্লাস্টিকের বস্তা সরবরাহ করা হলেও এবার নগরীতে পশু কোরবানির সংখ্যা কম হবে বলে তারা ধারণা করছেন। নির্ধারিত স্থানে পশু কোরবানির জন্য সংশ্লিষ্টদের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

রবিউল ইসলাম জানান, জনগণের সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনার জন্য প্লাস্টিকের বস্তা এবং ব্লিচিং পাউডার সরবরাহ করা হচ্ছে। তারা নির্ধারিত ১৪২টি স্থানে পশু কোরবানি এবং বর্জ্য ফেলবেন। সিটি করপোরেশনের ৯শ’ পরিচ্ছন্নতা কর্মী ওইদিন দুপুর ২টা থেকে কোরবানির বর্জ্য অপসারণের কাজ শুরু করবে। একই সাথে ১৪২টি স্থান পানিবাহী গাড়ি দিয়ে ধুয়ে ব্লিচিং পাউডার ছিটিয়ে দেয়া হবে। কোরবানির রাত ৮টার মধ্যে নগরীর পশু কোরবানীর সকল বর্জ্য অপসারণ করা হবে বলে জানান বিসিসি’র প্রধান পরিচ্ছন্নতা কর্মকর্তা মো. রবিউল ইসলাম।

পিএনএস/এসআইআর

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন