সাভারে নৃত্যশিল্পীকে ধর্ষণের পর হত্যা

  

পিএনএস ডেস্ক : সাভারের আড়াপাড়া মহল্লা থেকে বেদে সম্প্রদায়ের নৃত্য শিল্পী ময়ুরীর (৩০) লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল দুপুরে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সাভার মডেল থানার উপ-পরিদর্শক সাফায়েত হোসেন। এর আগে সকালে আড়াপাড়ার জমিদার বাড়ি মন্দির সংলগ্ন এলাকা থেকে ওই নারীর মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

নিহত ময়ুরী সাভারের বেদেপাড়া অধ্যুষিত কাঞ্চনপুর এলাকার তাহের মিয়ার মেয়ে। তিনি দীর্ঘদিন ধরে সাভারের বাজার রোড এলাকায় ভাড়া থেকে বিভিন্ন অনুষ্ঠানে নাচগান করে জীবিকা নির্বাহ করতো বলে জানিয়েছে পুলিশ। নিহত ময়ুরী সাইজে ছোট হলেও সাভারসহ বিভিন্ন অনুষ্ঠানে নৃত্য পরিবেশন করে সংসার চালাতেন।

এছাড়া বেদে সম্প্রদায়ের লোক হওয়ায় তার জনপ্রিয়তা ছিলো তুঙ্গে। থানা পুলিশ ও এলাকাবাসীরা জানায়, বুধবার রাতে নৃত্যশিল্পী ময়ুরী পৌল এলাকার আড়াপাড়া জমিদার বাড়ি মন্দিরে নাচ-গান করে রাত ১০টায় সেখান থেকে বাসার উদ্দেশ্য চলে যান।

পরে সকালে মন্দির সংলগ্ন এলাকার একটি গলিতে তার মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে থানায় জানায় স্থানীয়রা। খবর পেয়ে পুলিশ নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।

তবে এসময় তার নিজস্ব মুঠোফোন এবং সাথে থাকা কোন টাকা পয়সা পাওয়া যায়নি। নিহত ময়ুরীর পরিবারের সদস্যরা অভিযোগ করেন, বুধবার রাতে আড়াপাড়া এলাকায় একটি আশ্রমে কালিপূজার অনুষ্ঠানে নাচতে যায় ময়ুরী। ওই অনুষ্ঠানে নাচ শেষ করে বাড়ি ফেরার পথে দুর্বৃত্তরা তাকে ধর্ষণ ও হত্যা শেষে তার সাথে মোবাইল ও টাকা পয়সা লুটপাট করে নিয়ে গেছে।

সাভার মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সাফায়েত হোসেন বলেন, স্থানীয়দের খবরের ভিত্তিতে সকালে ঘটনাস্থল থেকে নিহতের মরদেহটি উদ্ধার করা হয়েছে। প্রাথমিক সুরতহাল শেষে ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহটি ঢাকার সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তবে নিহতের শরীরে কোন আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি। তাই ময়না তদন্তের রিপোর্ট হাতে পেলেই এ বিষয়ে নিশ্চিত হওয়া যাবে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন