খাটের উপর শিশু কন্যার, ঘরের আড়ায় ঝুলন্ত লাশ মায়ের

  


পিএনএস ডেস্ক: বরিশালের মেহেন্দিগঞ্জে ২ বছরের শিশু কন্যাকে হত্যা করে এক গৃহবধূ গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। বৃহস্পতিবার সকালে মেহেন্দিগঞ্জ পৌরসভার ৭ নম্বর ওয়ার্ডের বদরপুর এলাকার বাড়ি থেকে মা ও মেয়ের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। ময়না তদন্তের জন্য লাশ পাঠানো হয়েছে বরিশাল মর্গে। এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানিয়েছেন বরিশালের পুলিশ সুপার মো. সাইফুল ইসলাম।

যাদের মৃতদেহ মর্গে পাঠানো হয়েছে তারা হল- ওই এলাকার আমদাজ হোসেনের স্ত্রী সামলা বেগম (২৫) এবং তাদরে শিশু কন্যা আফরিন (২)।

আমজাদের মা রোকেয়া বেগম জানান, গত বুধবার গভীর রাতে পারিবারিক কলহের জের ধরে তার ছেলে কাঠ ব্যবসায়ী আমজাদ হোসেনের সাথে স্ত্রী সালমা বেগমের (২৫) ঝগড়া-বিবাদ হয়। এর জের ধরে ওই রাতেই আমজাদ রাগ করে বাড়ির পাশ্ববর্তী বোনের বাড়ি চলে যায়।

বৃহস্পতিবার সকাল ৬টার দিকে ঘুম থেকে উঠে রোকেয়া বেগম আমজাদের ঘরের খাটের উপর শিশু আফরিনের নিথর দেহ পড়ে থাকতে দেখে ডাকচিৎকার দেয়। প্রতিবেশীরা এগিয়ে এসে শিশুটির নিথর দেহ উদ্ধার করে। এ সময় ঘরের আড়ার সাথে শিশুটির মায়ের লাশ ঝুলন্ত লাশ দেখে পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ দুটি লাশের সুরতহাল করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করে।

বরিশালের পুলিশ সুপার মো. সাইফুল ইসলাম জানান, পুলিশ দুটি ধারণা নিয়ে আগাচ্ছে। প্রথমত পারিবারিক কলহের জের ধরে ওই শিশুটিকে হত্যা করে তার মা সালমা বেগম আত্মহত্যা করতে পারে। দ্বিতীয়ত অন্য কেউ শিশুটিকে হত্যার পর তার মা’কেও হত্যা করে লাশ ঝুলিয়ে রাখতে পারে। পুলিশ দুটি বিষয় নিয়ে সামনে আগাচ্ছে। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সালমা বেগমের স্বামী কাঠ ব্যবসায়ী আমজাদকে থানায় নেয়া হয়েছে।

এ ঘটনায় মামলা দায়েরসহ আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানিয়েছেন পুলিশ সুপার মো. সাইফুল ইসলাম।

পিএনএস/আনোয়ার

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন