চুরির অভিযোগে খুঁটিতে বেঁধে যুবককে নির্মম নির্যাতন

  

পিএনএস ডেস্ক : চুরির অভিযোগে দিনাজপুর শহরে এক যুবককে বৈদ্যুতিক খুঁটিতে বেঁধে চার ঘণ্টা ধরে নির্মম নির্যাতন চালিয়েছে বিক্ষুব্ধ লোকজন। চার ঘণ্টা পর খবর পেয়ে পুলিশ শহরের গনেশতলা এলাকা থেকে বিক্ষুব্ধ লোকজনের হাত থেকে হাত-পা বাঁধা অবস্থায় ওই যুবককে উদ্ধার করেছে।

নির্মম নির্যাতনের শিকার ওই যুবকের নাম মো. রবি (২৫)। তিনি দিনাজপুর শহরের বাহাদুরবাজার মহল্লার ছোটন মিয়ার ছেলে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, রোববার সকাল ৬টায় দিনাজপুর শহরের গনেশতলা এলাকার সঙ্গীত কলেজ সড়কের একটি নির্মাণাধীন ভবনে চুরি সন্দেহে কিছু লোক মো. রবি নামে ওই যুবককে আটক করে। এর পর স্থানীয়রা তাকে সেখানে একটি বৈদ্যুতিক খুঁটিতে বেঁধে ফেলে এবং নির্মমভাবে মারধর করে।

ঘটনাটি জানাজানি হওয়ার পর উৎসুক জনতা ঘটনাস্থলে গিয়ে তারাও তাকে ব্যাপক মারধর করে। বৈদ্যুতিক খুঁটিতে বেঁধে দীর্ঘ ৪ ঘণ্টা ধরে চলে এই নির্মম নির্যাতন। সকাল ১০টায় দিনাজপুর প্রেস ক্লাবের সভাপতি স্বরূপ বক্সী বাচ্চু ওই রাস্তা দিয়ে হেঁটে যাওয়ার সময় ঘটনাটি দেখে ফেলে বিক্ষুব্ধ লোকজনকে শান্ত করার চেষ্টা করেন। কিন্তু এরপর লোকজন ওই যুবককে পেটাতে থাকেন।

স্থানীয় লোকজনকে শান্ত করতে না পেরে বাধ্য হয়ে পুলিশকে খবর দেন প্রেস ক্লাবের সভাপতি। এরপর বেলা সোয়া ১০টার দিকে কোতোয়ালি পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে হাত-পা বাঁধা ও গুরুতর জখম অবস্থায় মো. রবিকে বিক্ষুব্ধ লোকজনের হাত থেকে উদ্ধার করে।

স্থানীয়রা জানান, ওই যুবক মাদকাসক্ত এবং সঙ্গীত কলেজ সড়কটি মাদকাসক্তদের অভয়ারণ্য এবং ওই যুবককে নির্মাণাধীন ভবন থেকে রড চুরি করে নিয়ে যেতে দেখেছেন তারা।

এ ব্যাপারে কোতোয়ালি থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. আসাদুজ্জামান আসাদ বলেন, খবর পেয়ে বৈদ্যুতিক খুঁটিতে বাঁধা অবস্থায় ওই যুবককে উদ্ধার করা হয়। তার শরীরে মারধরের চিহ্ন রয়েছে এবং গণপিটুনিতে অসুস্থ হয়ে পড়ায় তাকে প্রথমেই চিকিৎসা দেয়া হয়।

তিনি জানান, মো. রনির বিরুদ্ধে এখন পর্যন্ত কেউ কোনো লিখিত অভিযোগ করেনি। লিখিত অভিযোগ পেলেই তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন