ইবি আওয়ামীপন্থি শিক্ষকদের রুদ্ধদ্বার বৈঠক

  

পিএনএস ডেস্ক: ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টর ইলেকট্রনিক্স অ্যান্ড ইলেকট্রিকাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের অধ্যাপক মাহবুবর রহমানের পদত্যাগ দাবি করেছেন আওয়ামীপন্থি শিক্ষক নেতারা। শনিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের কার্যালয়ে দুপুর পৌনে ৩টা থেকে বিকেল পৌনে ৫টা পর্যন্ত তিন ঘণ্টা আওয়ামীপন্থি শিক্ষকদের দুটি সংগঠনের নেতারা রুদ্ধদ্বার বৈঠক করেন।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক শিক্ষক নেতা বলেন, সভায় প্রগতিশীল শিক্ষক সংগঠনের মধ্যে ভাঙনের জন্য অনেকটাই দায়ী করা হয় প্রক্টরকে। তাকে তুলোধুনো করে কথা বলেন অনেকেই। ভিসিকে মাঠের অবস্থা সম্পর্কে অবহিত করে প্রক্টরের পদত্যাগ দাবি করা হলে সব শিক্ষক নেতারা একমত পোষণ করেন। এছাড়াও সভায় প্রগতিশীল শিক্ষক সংগঠন দুটির মধ্যে যে অন্তর্কোন্দল রয়েছে তা নিরসনের জন্যও আলোচনা হয়েছে।

আগামী ডিসেম্বরে শিক্ষক সমিতির নির্বাচনে আওয়ামীপন্থি শিক্ষকদের অংশগ্রহণের কলা-কৌশল নিয়েও আলোচনা হয়েছে বলে জানিয়েছেন একাধিক শিক্ষক নেতা। এছাড়াও বিশ্ববিদ্যালয়ের উন্নয়ন ও অগ্রগতির কর্ম পরিকল্পনা নিয়ে আলোচনা হয়।

ভিসি প্রফেসর ড. হারুন-উর রশিদ আসকারীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বৈঠকে প্রো-ভিসি প্রফেসর ড. শাহিনুর রহমান, কোষাধ্যক্ষ প্রফেসর ড. সেলিম তোহা উপস্থিত ছিলেন।

এছাড়া অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বঙ্গবন্ধু পরিষদের একাংশের আহ্বায়ক প্রফেসর ড. মাহবুবুর রহমান, যুগ্ম আহ্বায়ক প্রফেসর ড. মামুনর রহমান, বঙ্গবন্ধু পরিষদের অপর গ্রুপের সভাপতি প্রফেসর ড. জাকারিয়া রহমান, সাধারণ সম্পাদক প্রফেসর ড. মিজানুর রহমান। শাপলা ফোরামের একাংশের সভাপতি অধ্যাপক মাহবুবুল আরফিন, সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক আনোয়ার হোসেন। শাপলা ফোরামের অন্য অংশের সভাপতি অধ্যাপক কামাল উদ্দিন।

সভার বিষয়ে কোষাধ্যক্ষ সেলিম তোহা বলেন, ‘বর্তমান প্রশাসনের এক বছর দায়িত্ব পালনকালে উন্নয়ন ও ভবিষ্যত উন্নয়নের পরিকল্পনা নিয়ে আলোচনা হয়েছে। এছাড়াও আমাদের অগ্রগতি ও ক্রটি নিয়েও আলোচনা হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের সার্বিক উন্নয়নে দুই সংগঠনের সহযোগিতা চাওয়া হয়েছে।’

সভার বিষয়ে উপাচার্য অধ্যাপক হারুন-উর রশিদ আসকারী বলেন, ‘এটা ফরমাল না, ইনফরমাল মিটিং। বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন উন্নতি অগ্রগতি নিয়ে আলোচনা হয়েছে।’

পিএনএস/হাফিজুল ইসলাম

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech