রাবি ভিসির বাসভবনে ছাত্রলীগের তালা

  

পিএনএস ডেস্ক : চাকরির দাবিতে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের বাসভবন ও প্রশাসন ভবনের গেটে তালা দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাবেক ও বর্তমান কমিটির কয়েকজন নেতাকর্মী। এসময় নেতাকর্মীরা ভিসি প্রফেসর ড. আব্দুস সোবহানের পদত্যাগ দাবি করেন।

সোমবার (১১ জানুয়ারি) রাত ৯টার দিকে তারা এসব গেটে তালা লাগিয়ে দেয়। নিষেধাজ্ঞার পরও ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের চাকরি না দিয়ে অন্য একজনকে সেকশন অফিসার পদে নিয়োগ দেওয়ার খবরে আন্দোলন করছে নেতাকর্মীরা। বর্তমানে আন্দোলনকারীরা উপাচার্যের বাসভবনের সামনে অবস্থান করছে।

রাবি ছাত্রলীগ সভাপতি গোলাম কিবরিয়া বলেন, ভিসি ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের চাকরি না দিয়ে নিজের লোকদের চাকরি দিচ্ছে; তাও শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নিষেধাজ্ঞা থাকার পরও। এ কারণে চাকরি প্রত্যাশীসহ ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা ভিসি লাউঞ্জের ফটকে তালা মেরেছে। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত তারা কর্মসূচি পালন করবেন।

সূত্রে জানা গেছে, সোমবার জালাল উদ্দিন নামের এক ব্যক্তিকে এডহক ভিত্তিতে সেকশন অফিসার নিয়োগ দেন রাবি ভিসি। এ খবর জানাজানি হলে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা সন্ধ্যার পর ভিসির সঙ্গে তার বাসভবনে সাক্ষাৎ করেন। বেরিয়েই তারা বাসভবনে তালা মেরে সেখানে অবস্থান শুরু করেন।

নিষেধাজ্ঞার পরও জনবল নিয়োগ প্রসঙ্গে রাবি উপাচার্য অধ্যাপক এম আব্দুস সোবহান বলেন, প্রধানমন্ত্রী কার্যালয় থেকে একটি চিঠি দেওয়া হয়েছে একজন প্রতিবন্ধী ছেলেকে চাকরি দেওয়া জন্য। যেহেতু নিয়োগ বন্ধে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নির্দেশ আছে তাই আমি বিষয়টি সচিবকে জানিয়েছি। তিনি বিষয়টি জেনে নিয়োগ দিতে বলেছেন। আমি নিয়োগ দিয়েছি। সন্ধ্যার দিকে কয়েকজন চাকরি প্রত্যাশী এসে চাকরির দাবি জানিয়েছে। তারা আমার সঙ্গে দেখা করেছে। আমি তাদের বলেছি, এটা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ডিজায়ার (ইচ্ছা)। এটা শুনে তারা তখন বলে, আমাদেরও দিন।’

প্রসঙ্গত, গত ১০ ডিসেম্বর শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে চিঠি দিয়ে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) সকল প্রকার নিয়োগ বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়।

পিএনএস-জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন